বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সুস্থ থাকতে বাসাতেই ট্রেডমিলে দৌড়ান অনেকেই। তবে যাঁরা বদ্ধ স্থান পছন্দ করেন না, তাঁরা সকাল সকাল বেরিয়ে পড়েন হাঁটতে বা দৌড়াতে। তবে যেভাবেই হাঁটতে বা দৌড়াতে পছন্দ করেন না কেন, পায়ের জুতা হওয়া চাই জুতসই।

হাঁটাহাঁটি বা দৌড়ানোর জুতার তলা বা সোলের আরামকেই সব থেকে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। এর জন্য জুতায় বাড়তি নরম সোল (মেমোরি সোল) ব্যবহার করা হয়। এ ছাড়া হাঁটা বা দৌড়ানোর সময় পা–কে সুরক্ষিতও রাখে এবং দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা কমে যায়। কারণ, জোরে জোরে হাঁটা বা দৌড়াতে গিয়ে পায়ের পাতার ওপর বেশ চাপ পড়ে। ট্রেডমিলে দৌড়ানোর জন্য খুবই হালকা সোলের জুতা পরা ভালো। ভারী সোলের জুতা পরে ট্রেডমিলে দৌড়ালে পায়ে ব্যথা হতে পারে। এ ছাড়া ভারী জুতা পায়ের ওজন বাড়িয়ে দেয়, যা আরাম ও স্বস্তি দুটিই নষ্ট করবে। বলছিলেন ওরিয়ন ফুটওয়্যার লিমিটেডের ব্যবসায় উন্নয়ন ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন।

এ ছাড়া এখন দৌড়ানো বা হাঁটার জুতার উপকরণেও বদল দেখা যাচ্ছে কিছুদিন পরপর। এসব উপকরণ বাড়ায় পায়ের আরাম ও দেখার সৌন্দর্য দুটিই। এসব জুতার প্রধান উপকরণ হলো সুতা। জুতার বাইরে ও ভেতরে উভয় পাশেই নরম ও আরামদায়ক সুতার বোনা কাপড় ব্যবহার করা হয়। এ ছাড়া দৌড়ালে বা হাঁটলে স্বাভাবিকভাবেই পা প্রচুর ঘামে। যার জন্য দরকার এমন উপকরণের জুতা, বাতাস চলাচলে সহায়তা করতে পারবে সহজেই। তাই জুতার ওপরে জাল বা নেটের আবরণ থাকে, যাতে ছিদ্র দিয়ে বাতাস পায়ে লাগতে পারে। এতে লম্বা সময় জুতা পরে ব্যায়াম করা যায় এবং অস্বস্তি বোধ হয় না।

default-image

দৌড়ানোর বা হাঁটার জুতা যেন খুব চাপা আকারের না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখার পরামর্শ দিলেন বাটার বিজ্ঞাপন ব্যবস্থাপক জোবায়ের ইসলাম। পায়ের আরামের জন্য অবশ্যই একটু খোলামেলা আকারের জুতা বাছাই করা উচিত। যেন পা বেশি চাপের মধ্যে না থাকে। এ ছাড়া এখন বাইরে হাঁটার জন্য ফিতা ছাড়া জুতা বেশ জনপ্রিয়। কারণ, এতে প্রতিদিন বাইরে যাওয়ার সময়ে ফিতা বাঁধার চিন্তা থাকে না। অল্প সময়েই জুতা পরে ফেলা যায়। আবার ফিতায় আটকে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কাও থাকে না। এ ছাড়া এই ধরনের জুতার ভেতরের দিকের পুরোটাই নরম ফোম ব্যবহার করা হয়, যেন পায়ে ব্যথা না পাওয়া যায়।

এ ছাড়া দৌড়ানোর জুতা একটু রঙিনই পছন্দ করেন সবাই। তাই বাটা, অ্যাপেক্স, ওরিয়নসহ আরও অনেক দোকানেই এমন রঙিন সব আরামদায়ক ও দেখতে সুন্দর দৌড়ানোর বা হাঁটার জুতা পাওয়া যাচ্ছে।

দরদাম

ওরিয়নে হাঁটা বা দৌড়ানোর জুতা পাওয়া যাচ্ছে ২১৯০ থেকে ৪৯৯০ টাকায়। বাটায় সর্বোচ্চ ১০০০০ টাকার জুতা রয়েছে। এ ছাড়া ২০০০ থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যেও ভালো দৌড়ানোর জুতা পাওয়া যাবে। অ্যাপেক্সে দৌড়ানোর জুতার দাম ২৭৫০ থেকে ৪৯৯০ টাকা।

নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন