default-image

দাওয়াত-এ-মেজবান

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক খাবার নিয়ে ঢাকার ধানমন্ডির ৫ নং সড়কে বিকল্প টাওয়ারে চালু হয়েছে দাওয়াত-এ-মেজবান নামের রেস্তোরাঁ। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত এটি খোলা থাকে। 

দাওয়াত-এ-মেজবানের ব্যবস্থাপক মামুন হোসেন বলেন, ‘চট্টগ্রামের আঞ্চলিক খাবারের বেশ চাহিদা রয়েছে। ব্যাপারটা মাথায় রেখেই আমরা আমাদের রেস্তোরাঁয় চট্টগ্রামের আঞ্চলিক খাবার প্রাধান্য দিয়েছি। বিশেষ খাবারের মধ্যে আছে কালাভুনা, মেজবানি মাংস, চানার ডাল, নলার ঝোল, লইট্টা ফ্রাই, রূপচাঁদা ফ্রাই, মিশ্র সবজি এবং ভারতীয় ও চীনা খাবার। আছে নানা স্বাদের শরবতও।’

default-image

হোটেল জামান অ্যান্ড বিরিয়ানি হাউস

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী হোটেল জামান অ্যান্ড বিরিয়ানি হাউস সম্প্রতি ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার প্রধান গেটের কাছে চালু হয়েছে। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক খাবারের চাহিদার কারণে ঢাকায় এই রেস্টুরেন্টের শাখা চালু করা হয়েছে। হোটেল জামান অ্যান্ড বিরিয়ানি হাউসের স্বত্বাধিকারীরা হলেন নাসরীন চৌধুরী, শাহেদুজ্জামান, নাজমুজ্জামান ও সাকিব রহমান। তাঁদের রেস্তরাঁর বিশেষ খাবারের মধ্যে আছে বিরিয়ানি, মেজবানি মাংস, কালা ভুনা, চিকেন গ্রিল, বিভিন্ন পদের ভর্তা, খাসির পায়া, নেহারি, স্পেশাল নান, স্পেশাল ফালুদাসহ আরও অনেক কিছুই। প্রতিদিন সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত খোলা থাকে এই রেস্টুরেন্ট।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0