শুধু কি তরকারিতেই খাবেন সবজি? একদম না, শীতের সবজির স্বাদ নিন নাশতাতেও। দেখুন সিতারা ফিরদৌসের দেওয়া রেসিপিগুলো।

default-image

চাটাম বড়ি
উপকরণ: ছোলার ডাল ১ কাপ, বাঁধাকপি কুচি আধা কাপ, গাজরকুচি আধা কাপ, পেঁয়াজ পাতা কুচি সিকি কাপ, নারকেল কোরানো আধা কাপ, কাঁচা মরিচকুচি ২ চা-চামচ, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল-চামচ, কারিপাতা কুচি ১ টেবিল-চামচ, আদাকুচি ১ চা-চামচ, আজওয়াইন ১ চা-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল-চামচ।
প্রণালি: ডাল ৫/৬ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। এবার ডাল আধাবাটা করে নিতে হবে। অমসৃণ হবে। ডালের সঙ্গে বাকি সব উপকরণ মাখিয়ে তেলে ভেজে গরম গরম নারকেলের চাটনি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

default-image

পনির পপারস
উপকরণ: কটেজ চিজ ১ কাপ, মজারেলা চিজ আধা কাপ, পেঁয়াজ পাতা কুচি ২ টেবিল-চামচ, গাজরকুচি ২ টেবিল-চামচ, পালং পাতা কুচি ২ টেবিল-চামচ, পুদিনা পাতাকুচি ১ টেবিল-চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল-চামচ, ব্রেডক্রাম্ব ১ কাপ, তেল ভাজার জন্য।
প্রণালি: সমস্ত উপকরণ একসঙ্গে ভালো করে মাখিয়ে বলের আকার করে নিতে হবে। এবার ব্যাটারে ডুবিয়ে ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে গরম ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। সসের সঙ্গে মুচমুচে পালং দিয়ে পরিবেশন করা যায়।
ব্যাটার তৈরি: ময়দা ৪ টেবিল-চামচ, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল-চামচ, ডিম ২টি, মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো। সমস্ত উপকরণ ভালো করে মিলিয়ে ব্যাটার তৈরি করতে হবে।
মুচমুচে পালং তৈরি: পালংশাক ধুয়ে ভালো করে পানি ঝরিয়ে মাঝের শিরা বাদ দিয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ বাতাসে শুকিয়ে সামান্য কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে মাখিয়ে গরম ডুব তেলে পাঁপরের মতো ভেজে নিতে হবে। সামান্য চিনি ও তিল ছড়িয়ে পরিবেশন করা যায়।

default-image

মুচমুচে রোল
উপকরণ: বড় পাউরুটি ৮ টুকরা, ফুলকপি কুচি সিকি কাপ, বাঁধাকপি কুচি সিকি কাপ, গাজরকুচি সিকি কাপ, মটরশুঁটি সিকি কাপ, পেঁয়াজ পাতা সিকি কাপ, সেদ্ধ রুই মাছের কিমা ১ কাপ, কাঁচা মরিচ কুচি ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, পনির কুচি ৩ টেবিল-চামচ, পুদিনাপাতা কুচি ৩ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, ব্রেডক্রাম্ব ১ কাপ, ডিম ২টি, ময়দা ৪ টেবিল-চামচ, আদাকুচি ১ চা-চামচ, পেঁয়াজ কুচি সিকি কাপ, কারি পাউডার ১ চা-চামচ, তেল ভাজার জন্য।
প্রণালি: চুলায় ২ টেবিল-চামচ তেল গরম করে তাতে মরিচ, পেঁয়াজ, আদা ভেজে পর্যায়ক্রমে সমস্ত সবজি ও মাছ দিয়ে ভাজতে হবে। লবণ, গোলমরিচ, কারি পাউডার, পনির, পুদিনাপাতা দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নামাতে হবে।
পাউরুটির ধারগুলো বাদ দিয়ে পাউরুটির ওপর অল্প পানি ছিটিয়ে দিতে হবে। রুটির এক কোনায় সবজির পুর রেখে কোনা ধরে রোল করতে হবে। ডিম ফেটিয়ে ময়দা, লবণ দিয়ে ব্যাটার তৈরি করে রুটির রোল ব্যাটারে ডুবিয়ে ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে গরম ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। সস বা চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করতে হবে।

default-image

ওপেন স্যান্ডউইচ
উপকরণ: পাউরুটি ১০ টুকরা, ডিম ২টি, কর্নফ্লাওয়ার ৩ টেবিল-চামচ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ সামান্য।
পুরের উপকরণ: বাঁধাকপি কুচি আধা কাপ, গাজর কুচি সিকি কাপ, ক্যাপসিকাম কুচি সিকি কাপ, সুইট বেবিকর্ন ২ টেবিল-চামচ, রেড বিন ১ টেবিল-চামচ, পুদিনা পাতা ১ টেবিল-চামচ, পেঁয়াজ পাতা ২ টেবিল-চামচ, সাদা গোলমরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ সামান্য, মেয়োনিজ ৪ টেবিল-চামচ।
প্রণালি: পাউরুটির ধারগুলো কেটে নিতে হবে। বাকি সব উপকরণ দিয়ে ব্যাটার করে রুটি ব্যাটারে ডুবিয়ে গরম ডুবো তেলে ভাজতে হবে।
পুরের সমস্ত উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে গরম রুটির ওপর দিয়ে সঙ্গে সঙ্গে পরিবেশন করতে হবে।

সিচুয়ান সস
উপকরণ: টমেটো কুচি ১ কাপ, কমলার রস আধা কাপ, লেবুর রস ২ টেবিল-চামচ, লাল কাঁচা মরিচ বাটা ১ চা-চামচ, আদাকুচি ১ চা-চামচ, রসুনকুচি ১ চা-চামচ, অলিভ অয়েল ১ টেবিল-চামচ, লবণ সামান্য, পার্সলে গুঁড়া বা ফ্লেকস ১ চা-চামচ, চিনি ১ টেবিল-চামচ।
প্রণালি: চুলায় অলিভ অয়েল গরম করে তাতে আদা, রসুন ভেজে নিতে হবে। এবার টমেটো দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে বাকি উপকরণ দিয়ে নামাতে হবে।

default-image

বেবিকর্ন ফ্রিটারস
উপকরণ: বেবিকর্ন ১ কাপ, বেবিকর্ন অর্ধেক করে কেটে সামান্য লবণ পানিতে আধা সেদ্ধ করে নিতে হবে।
ব্যাটারের উপকরণ: ময়দা সিকি কাপ, কর্নফ্লাওয়ার সিকি কাপ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ সামান্য, গোলমরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, কারি পাউডার ২ চা-চামচ, বেকিং পাউডার আধা চা-চামচ, চিনি ২ চা-চামচ, টক দই পৌনে এক কাপ।
প্রণালি: সমস্ত উপকরণ একসঙ্গে মিলিয়ে ব্যাটার তৈরি করে নিতে হবে। বেবিকর্ন ব্যাটারে ডুবিয়ে গরম ডুবো তেলে ভেজে সস অথবা চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করতে হবে।

ধনেপাতার চাটনি
উপকরণ: ধনেপাতা কুচি ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৬-৮টি, রসুন ২ কোয়া, লবণ স্বাদমতো, চিনি ২ টেবিল-চামচ বা স্বাদমতো, তেঁতুলের মাড় আধা কাপ।

প্রণালি: ধনেপাতা, কাঁচা মরিচ, রসুন বেটে নিয়ে বাকি উপকরণের সঙ্গে মিশিয়ে সস বানাতে হবে।

default-image

পুরভরা বেগুন পাকোড়া
উপকরণ: মাংসের কিমা আধা কাপ, আদাবাটা আধা চা-চামচ, রসুনবাটা আধা চা-চামচ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, গোলমরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, গরমমসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ, ঘি ১ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো। সমস্ত উপকরণ দিয়ে কিমা মাখিয়ে রাখতে হবে। লম্বা বেগুন গোল করে কাটা ১ কাপ।
ব্যাটারের উপকরণ: ময়দা ৪ টেবিল-চামচ, কর্নফ্লাওয়ার ৪ টেবিল-চামচ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ সামান্য। সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পানি দিয়ে ব্যাটার করতে হবে।
প্রণালি: ১টি বেগুনের টুকরোর ওপর মাংসের পুর দিয়ে আরেকটি বেগুনের টুকরো দিয়ে ঢেকে ব্যাটারে ডুবিয়ে টুথপিকে গেঁথে নিতে হবে। গরম ডুবো তেলে ভাজতে হবে।

নারকেলের চাটনি
উপকরণ: নারকেল বাটা ১ কাপ, তেঁতুলের মাড় ২ টেবিল-চামচ, চিনি ২ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, সরিষার তেল ১ টেবিল-চামচ, সরিষা আধা চা-চামচ, মেথি সামান্য, কাঁচা মরিচ বাটা আধা চা-চামচ।
প্রণালি: তেল গরম করে মেথি, সরিষার ফোড়ন দিয়ে বাকি উপকরণ দিতে হবে। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন
নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন