বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফ্রান্সের জনপ্রিয় বেকারি ঢাকায়

ডেলিফ্রেন্স বাংলাদেশের নতুন শাখা যাত্রা শুরু করেছে ঢাকায়। ফ্রান্সের জনপ্রিয় এই ফ্রোজেন বেকারি ২ নভেম্বর বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। ১১৪ গুলশান অ্যাভিনিউতে প্রথম এই শাখার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত জন মেরিন শুহ।

নানা রকম বেকারি খাবারের মধ্যে ক্রসা, বার্গার, ফ্রেঞ্চফ্রাই, কফিসহ নানা পদের ফ্রেঞ্চ খাবারের আদি স্বাদ মিলবে এখানে।

বাংলাদেশে ডেলিফ্রেন্সের কার্যক্রম পরিচালনা করবে লেস ব্লিউস লিমিটেড। ডেলিফ্রেন্স বাংলাদেশে আরও বড় পরিসরে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে চায়। উদ্বোধনের পর অতিথিরা বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ভোজনরসিক। খাবার ও খাবারের প্রতি মানুষের ভালোবাসার মাধ্যমে ডেলিফ্রেন্স বেকারি ফ্রান্স-বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক সম্পর্ক আরও গাঢ় হবে।

অনুষ্ঠানে ফরাসি রাষ্ট্রদূত সে দেশের মানুষের খাদ্যাভ্যাসসহ বিভিন্ন বিষয়ে আড্ডা দেন।

ডেলিফ্রেন্স ফ্রান্সভিত্তিক বহুজাতিক বেকারি কোম্পানি। পৃথিবীর শতাধিক দেশে এর কার্যক্রম চলমান। ১৯৭৮ সালে যাত্রা শুরু করলেও এটি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে ১৯৮৩ সালে।

অনুষ্ঠান আয়োজনে

বিয়ের আয়োজনে সব ধরনের সেবা পাওয়া যাবে সাদিক অ্যাগ্রো থেকে। বিয়ে ও গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে মিষ্টির ডালা সাজানো থেকে শুরু করে নানা ধরনের কাবাব, শরবতের ফরমাশ নিচ্ছে তারা। নিজস্ব কারখানায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানের পাশাপাশি করপোরেট প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানের জন্যও কাজ করে থাকে সাদিক অ্যাগ্রো।

দশক পূর্তি

‘পোশাকে দেশীয় ঐতিহ্য ধরে রাখার প্রচেষ্টা’ এই স্লোগানে ১০ বছর পূর্তি উদ্‌যাপন করল কারু বুটিক। ১২ নভেম্বর রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় জমকালো আয়োজনে কেক কেটে বর্ষপূর্তি উদ্‌যাপন করে প্রতিষ্ঠানটি। কেক কাটেন অভিনেত্রী রোজী সিদ্দিকী, প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী জান্নাতুল ফেরদৌস।

কারু বুটিক ২০১১ সালের ১১ নভেম্বর অনলাইনে পোশাক বিক্রির মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। এরই মধ্যে সিলেটে ‘কারু’ নামে দোকানও চালু হয়েছে। পোশাকের নতুন সংগ্রহ আর ১০ বছর পূর্তি—দুই মিলিয়ে এক ফ্যাশন শোর আয়োজন করেছিল ফ্যাশন হাউস কারু বুটিক। ফ্যাশন শো উপস্থাপনা করেন মডেল হৃদি। আর প্রতিষ্ঠানের ডিজাইনার জান্নাতুল ফেরদৌসের নকশা করা পোশাক গায়ে জড়িয়ে র‍্যাম্পে হাঁটেন শিশু ও নারী মডেল।

নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন