বিজ্ঞাপন
default-image

বিদ্যা সিনহা মিম: নিয়মিত ওয়ার্কআউট করতে ভালোবাসেন বিদ্যা সিনহা মীম। পাশাপাশি প্রচুর পানি পান করেন। ‘নিয়মিত ১১ থেকে ১২ গ্লাস পানি পান করে থাকি আমি। যদিও শুটিংয়ে অনেক সময় তা সম্ভব হয় না। তখন ডিটক্স ওয়াটার সঙ্গে রাখি। তুলসী পাতা, শসা, লেবু তো থাকেই আবার কখনো কখনো এই ডিটক্স ওয়াটারের সঙ্গে যুক্ত হয় আরও নানান কিছু। এই পানীয় আমাকে কাজের ব্যস্ততায় সতেজ রাখতে সাহায্য করে।’’ বলছিলেন মীম। যদিও রূপচর্চার খুব একটা সময় পান না, তবে বাজারে যে আয়ুর্বেদিক উপাদানে তৈরি প্যাকগুলি পাওয়া যায় তা ত্বকের চর্চায় ব্যবহার করে থাকেন। এ ছাড়া প্রচুর পরিমাণে সবুজ শাকসবজি ও তাজা ফলমূল খেতে ভালোবাসেন মীম। তার ধারণা, এই সবুজ শাকসবজি ও তাজা ফলমূল খাওয়ার কারণে সব সময় সতেজ থাকে তার ত্বক ও চুল।

default-image

শবনম বুবলী: ত্বক ও চুলের যত্নের ব্যাপারে খাবারের দিকে বিশেষ মনোযোগ দিয়ে থাকেন শবনম বুবলী। এ ছাড়া নিয়মিত ৪৫ মিনিট ধরে যোগব্যায়াম করেন। ঘুমের ব্যাপারেও বেশ সচেতন তিনি। নিয়ম মেনে আট ঘণ্টা ঘুমান। পাশাপাশি আট থেকে দশ গ্লাস পানি পান করে থাকেন তিনি। আলাদা করে ত্বক ও চুলের যত্নের পেছনে খুব একটা সময় ব্যয় করতে ভালোবাসেন না। ‘‘আসলে রূপচর্চার জন্য সময় ব্যয় না করে ওই সময়টা আমি ঘুমাতে পছন্দ করি। না হলে সিনেমা দেখি ,গান শুনি। এই বিষয়গুলো আমার মনকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। মন ভালো থাকলে তার প্রভাব ত্বক ও চুলে পরতে বাধ্য।’’ বলছিলেন শবনম বুবলী।

default-image

অর্চিতা স্পর্শিয়া: সব সময়ই পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে থাকেন। ‘‘শুটিংয়ে থাকলে মেকআপ তুলার জন্য তো ভালো করে মুখ তো ধুতেই হয়। তবে আমি সবসময়ই এই কাজটি করি। এমনকি বাসায় থাকলেও ’’বলছিলেন স্পর্শিয়া। জানালেন এই পানি দিয়ে বারবার মুখ ধোয়ার কারণের সব সময়ই সতেজ থাকে তার ত্বক। পাশাপাশি নিজেকে ফিট রাখতে ওয়ার্কআউট করেন। একসময় প্রচুর বাইরের খাবার খেতেন। যার বাজে প্রভাব পরেছিল ত্বক ও চুলে। এখন অবশ্য আর এই ভুল করেন না। নিয়মিত বাসায় রান্না করা খাবার খেয়ে থাকেন। স্পর্শিয়া মনে করেন, নিয়মিত বাইরের খাবার খাওয়ার প্রবণতা না থাকাই ভালো। বাসার তৈরি যে কোনো খাবার অনেক স্বাস্থ্যকর। যা নিজেকে সুস্থ ও সুন্দর রাখতে অনেক সহায়তা করে বলে মনে করেন তিনি।

default-image

জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশি: ত্বকের যত্নে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি জাতীয় খাবার খেয়ে থাকেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ‘বাইরে শুটিং থাকলে সিভিট খাই। আর বাসায় প্রতিদিন একটা আস্ত লেবু খেয়ে থাকি। এইজন্য ত্বকের জন্য খুব একটা সমস্যায় পরতে হয় না আমাকে।’’ বলছিলেন ঐশী। এছাড়াও ত্বক ও চুলের স্বাভাবিকতা ধরে রাখতে পানি পানের কোনো বিকল্প নেই বলে মনে করেন তিনি। যতই ব্যস্ত থাকেন না কেন আট ঘণ্টা ঘুমানোর চেষ্টা করেন ।আর বেশি কিছু নয়। ঐশি জানালেন, এই হলো তার সব সময় সতেজ থাকার গোপন রহস্য।

default-image

তাসনিয়া ফারিন: স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন মেনে চলার চেষ্টা করেন তাসনিয়া ফারিন। প্রতিদিন খুব তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যান। আর ঘুম থেকে ওঠেন খুব ভোরে। পাশাপাশি সকালে উঠেই খালি কুসুম গরম পানিতে মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে পান করে। এটি শরীরের ভেতর থেকে ত্বককে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে বলে মনে করেন তিনি। এ ছাড়াও ত্বক ও চুলের যত্নে ডিটক্স ওয়াটার পান করে থাকেন নিয়মিত। খাবার তালিকায় থাকে নানা রকম স্মুদির আয়োজন। তার ত্বকের সুরক্ষা দিতে এই পানীয় দুটি অতুলনীয় বলে জানালেন ফারিন।

নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন