default-image

ক্লান্ত-শ্রান্ত দেহমন কে চায়? শত ব্যস্ততায় তার পরও ক্লান্তি এসে ভর করে। জীবনযাত্রার ধরন কেমন হলে সব সময় নিজেকে সজীব রাখা যায়, সেসব পরামর্শ দিয়েছেন রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন।
‘সারা দিন সজীব থাকতে জীবনযাত্রায় আনতে হবে কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন। খাবার-ঘুম-ব্যায়াম ইত্যাদি ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। শরীর-মন সুস্থ ও সতেজ রাখতে আমাদের দৈনিক ছয়-সাত ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। এই ঘুমটা যদি পরিপূর্ণ হয়, তাহলে সারা দিন আপনি ক্লান্ত হবেন না। থাকবেন সজীব।’ বললেন আফরোজা পারভীন।
পর্যাপ্ত ঘুমের সঙ্গে তিনি জোর দিয়েছেন ব্যায়ামে। নিয়মিত খালি হাতে ব্যায়াম এবং প্রতিদিন ৩০ থেকে ৪০ মিনিট হাঁটা মনকে ফুরফুরে রাখতে সাহায্য করে। নিয়ম করে হাঁটা সকাল কিংবা বিকেল—যেকোনো সময়ই হতে পারে।
ঘুম, ব্যায়ামের পর নজর দিতে হবে খাওয়াদাওয়ার ক্ষেত্রে। ভাজা-পোড়া পরিত্যাগ করে একটা ভারসাম্যপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস অনুসরণ করতে হবে। সেই খাবারের রুটিনে থাকবে দুধ, তাজা শাকসবজি, প্রচুর ফল, ফলের শরবত এবং ভিটামিন সি জাতীয় খাবার। আর খেতে হবে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি।
খাবার-ঘুম আপনাকে শরীরের ভেতর থেকে সজীবতা এনে দেবে। এর সঙ্গে বাহ্যিক কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে নিজেকে সজীব ও প্রাণবন্ত রাখতে মনোযোগী হতে হবে সৌন্দর্যচর্চায়। প্রথমে নিজেই একটি রূপ-রুটিন তৈরি করে নিন। এই রুটিন অনুযায়ী চর্চা করতে হবে।
প্রথমেই খেয়াল রাখতে হবে চুলের দিকে। বাইরে ঘোরাফেরা করার ফলে ধুলোবালিতে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। এই রুক্ষ চুলের পরিচর্যা করতে হবে সঠিকভাবে, সঠিক নিয়মে। হাতে যাঁদের সময় খুব কম তাঁরা সপ্তাহে অন্তত এক দিন চুলের গোড়ায় নারকেল তেল গরম করে ম্যাসাজ করবেন। এরপর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগাবেন। আর হাতে সময় থাকলে শ্যাম্পু করার এক ঘণ্টা আগে চুলের গোড়ায় নারকেল তেলের সঙ্গে মেথিগুঁড়া, লবঙ্গগুঁড়া, আমলা থেঁতো করে ১০ মিনিট ফুটিয়ে ঠান্ডা করে ম্যাসাজ করে নিতে পারেন। এর ফলে আপনার চুল হবে ঝরঝরে ও উজ্জ্বল।
ত্বকের যত্নে ঘরে তৈরি প্যাক খুব কাজে দেয়। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য গাজর কুচি করে তাতে মুলতানি মাটি মিশিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে। আর যাঁদের ত্বক শুষ্ক তাঁরা টকদই, চালের গুঁড়া, একটু হলুদ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে লাগাতে পারেন সপ্তাহে এক দিন। এ ছাড়া আপেল-কলা চটকে তাতে একটুখানি কমলার রস মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন, যখনি সময় পান। এতে করে সতেজ থাকবে ত্বক।
ত্বক-চুলের পরিচর্যার পাশাপাশি হাত-পায়ের যত্ন নেওয়াও খুব জরুরি। ঘরে বসেই নিয়ম করে হাত-পায়ের যত্ন নেওয়ার দিকে মনোযোগী হতে হবে।

আফরোজা পারভীনের কিছু পরামর্শ
: প্রচুর সালাদ ও মৌসুমি ফল খান।
: হালকা খাবার খান। খুব বেশি তেল-মসলার খাবার খাবেন না।
: সারা দিন কয়েকবার লেবুর পানি খেতে পারেন। দুপুরে বা রাতে খাওয়ার আগে আদা দিয়ে তৈরি চা খেতে পারেন। কফি কম খাবেন।
: খাওয়ার আগে আদার টুকরো সামান্য লবণ দিয়ে খেতে পারেন।
: দুপুরে বা রাতে খাওয়ার সময় কুসুম গরম পানি খান।
: গরমের সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার চেষ্টা করুন। নিয়মিত অন্তর্বাস পরিবর্তন করুন।
: চিরুনি পরিষ্কার রাখুন। গরমে মাথার ত্বক সহজে ঘেমে যায়। অপরিষ্কার চিরুনি ব্যবহার করলে জীবাণু সংক্রমণ হতে পারে।
: তোয়ালে নিয়মিত পরিষ্কার করুন।
: সারা দিন কাজের শেষে বাড়ি ফেরার পর হাত-পা ধোয়ার জন্য অবশ্যই জীবাণুনাশক তরল হ্যান্ডওয়াশ ব্যবহার করুন।
গ্রন্থনা: জোহরা শিউলী

বিজ্ঞাপন
নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন