মুখে মেছতার দাগ, কীভাবে দূর করব?

পরিপাকতন্ত্র

আমার বয়স ২০ বছর, ওজন ৩৯ কেজি, উচ্চতা ৫ ফুট ১ ইঞ্চি। কিছুদিন হলো খাওয়ার পর পেটে প্রচণ্ড ব্যথা হয়। ব্যথা দুই–তিন ঘণ্টা থাকে, আবার নিজে নিজেই ভালো হয়ে যায়। খাবারে রুচি নেই বললেই চলে। আমার কী করা উচিত?—মিরা রহমান

এ ধরনের পেটব্যথা পিত্তথলির কোনো সমস্যা বা পেপটিক আলসারের জন্য হতে পারে। তবে ব্যথার ধরন, ব্যথার গতিপ্রকৃতি, কোন দিকে ছড়ায় এবং পেটে কোনো চাকা বা অস্বাভাবিকতা আছে কি না, তা পরীক্ষা না করে বোঝা মুশকিল। সঙ্গে অরুচি থাকা বা ওজন হ্রাস কিন্তু ভালো নয়। তাই আপনার উচিত হবে একজন মেডিসিন বা পরিপাকতন্ত্র বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করা।

পরামর্শ দিয়েছেন—ডা. আ ফ ম হেলালউদ্দিন, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।

বিজ্ঞাপন

নাক–কান–গলা

আমার বয়স ৩৫ বছর। পাঁচ বছর ধরে আমি নাকের সাইনাসজনিত রোগে ভুগছি। অনেক চিকিৎসক দেখিয়েছি, একবার অস্ত্রোপচারও করিয়েছি, কোনো উন্নতি হয়নি। উল্লেখ্য, আমার নাক বন্ধ হয়ে যায়, গন্ধ পাই না এবং নাকের ভেতর ঘা আছে। শ্বাস নিতে কষ্ট হয়, আমি এখন কী করব?

আসাদুজ্জামান

সাইনুসাইটিস একটি দীর্ঘমেয়াদি সমস্যা। এর চিকিৎসাও দীর্ঘমেয়াদি। অপারেশন করলেই বা কিছুদিন ওষুধ খেলেই ভালো হয়ে যায় না। তাই একজন অভিজ্ঞ নাক–কান–গলা বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে থাকুন।

পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক ডা. এ এফ মহিউদ্দিন খান, ইএনটি বিশেষজ্ঞ।

চর্মরোগ

আমার স্ত্রীর পেটের বাঁ দিকে ৩ ইঞ্চির মতো জায়গার চামড়া চকচকে কালো হয়ে শক্ত হয়ে গেছে, সে ৫ মাস আগে এটি লক্ষ করে। তার বয়স ৩২ বছর। কোনো ব্যথা বা চুলকানি নেই। ‘মরফিয়া’ নামের রোগটি শনাক্ত করে চিকিৎসক অয়েন্টমেন্ট লাগাতে বলেন। এ অবস্থায় সন্তান নিতে চাইলে কোনো সমস্যা হবে?

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

মুখে খাবার ওষুধ না দিলে কেবল অয়েন্টমেন্ট বা ক্রিম লাগালে সন্তান নিতে সমস্যা নেই। মরফিয়া নামের রোগেও সন্তান নিতে বাধা নেই।

আমার মুখে দীর্ঘদিন ধরে মেছতার দাগ দেখা যাচ্ছে। কয়েক বছর আগে চিকিৎসকের পরামর্শে ক্রিম ব্যবহারের ফলে দাগগুলো সাময়িক চলে গিয়েছিল। কিছুদিন পরে আবার দাগগুলো দেখা যায়। আমার বয়স ৩৪ বছর। দাগগুলোর স্থায়ী সমাধানের জন্য পরামর্শ দিলে খুবই উপকৃত হব।

বিদায়ন বড়ুয়া, বাসাবো, ঢাকা।

মেছতার দাগ তোলার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে হাইড্রোকুইনোন ও কিছু ব্লিচিং ক্রিম বা প্রসিডিউর করা যায়। এ ছাড়া মেছতার পেছনে কিছু হরমোনের কারণ, জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি, থাইরয়েডের সমস্যা ইত্যাদি দায়ী থাকতে পারে। মানসিক চাপও একটি কারণ। কারণটি দূর করার চেষ্টা করুন। গর্ভাবস্থায় অনেকের হয়, যা পরে এমনিতেই চলে যায়।

পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক মো. আসিফুজ্জামান, বিভাগীয় প্রধান চর্ম ও যৌন বিভাগ, গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।

বিজ্ঞাপন

টিউমার

আমার বয়স ৩০ বছর। আমার শরীরে কিছু কিছু জায়গায় ছোট ছোট টিউমার হয়েছে, কোনো ব্যথা নেই, আস্তে আস্তে কিছু কিছু জায়গায় বেড়ে চলেছে। বেশি বড় না, ছোট ছোট। এর চিকিৎসা কী?

মো. রনি

আপনি একজন চি‌কিৎস‌কের কাছে গিয়ে টিউমারগুলো পরীক্ষা করাবেন। তবে আপনার টিউমারগু‌লোর স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। যেকোনো একটা টিউমার থেকে মাংস নি‌য়ে পরীক্ষা (হিস্টোপ্যাথোলজি)/ বায়োপসি করার মাধ্যমে কী ধর‌নের টিউমার, সে‌টি নির্ণয় করা যায়। আপনার ক্ষে‌ত্রে ‌টিউমারগু‌লো ক্ষ‌তিকারক ম‌নে না হ‌লেও পর্যবেক্ষণে রাখা ভালো। প্রয়োজ‌নে বি‌শেষজ্ঞ‌ চি‌কিৎস‌কের পরামর্শ নিন।

পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ এহ্‌তেশামুল হক, সিনিয়র কনসালট্যান্ট, রেডিয়েশন অনকোলজি অ্যান্ড অনকোলজি, ল্যাবএইড ক্যানসার হাসপাতাল অ্যান্ড সুপার স্পেশালিটি সেন্টার, ঢাকা।

প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা

স্বাস্থ্য জিজ্ঞাসা

ই-মেইল: [email protected]

ফেসবুক পেজ: fb.com/ProShastho

ডাকযোগে: প্র স্বাস্থ্য, প্রথম আলো, ১৯ কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

প্র স্বাস্থ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন