বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
তোমাদের শিক্ষাজীবন শুরু হয়েছিল ২০২০ সালের ভয়ানক মহামারির আগে। হ্যাঁ, ‘মহামারির আগে’, ‘মহামারির পরে’—বাকি জীবন এভাবেই তোমাদের বলতে হবে। গল্প বলতে গিয়ে সময়ের বর্ণনা দিতে হবে এমন করে—সেটা ছিল করোনাকালের আগের কথা। তোমাদের জীবনের অধ্যায়গুলো আগে ও পরে—এই দুটো ভাগে ভাগ হয়ে গেল।
টম হ্যাংকস, হলিউড অভিনেতা

তোমাদের শিক্ষাজীবন শুরু হয়েছিল ২০২০ সালের ভয়ানক মহামারির আগে। হ্যাঁ, ‘মহামারির আগে’, ‘মহামারির পরে’—বাকি জীবন এভাবেই তোমাদের বলতে হবে। গল্প বলতে গিয়ে সময়ের বর্ণনা দিতে হবে এমন করে—সেটা ছিল করোনাকালের আগের কথা। তোমাদের জীবনের অধ্যায়গুলো আগে ও পরে—এই দুটো ভাগে ভাগ হয়ে গেল। এর আগের প্রজন্মের মানুষেরা যেভাবে আমাদের গল্প শোনাতেন—সেটা যুদ্ধের আগের কথা বা ইন্টারনেট আসার আগের কথা।

আগের কথা—বাক্যটা তোমাদের জীবনে এক অন্যরকম গুরুত্ব বহন করবে। আজ, এমন এক সময়ে তোমরা সমাবর্তন পাচ্ছ, যখন বিজ্ঞান, জাতীয়তাবাদ, মানবতা সব পুরোনো ধ্যানধারণা ভেঙে পুনর্গঠিত হচ্ছে। তোমাদের শিক্ষাজীবন এমন এক পর্যায়ে এসে শেষ হচ্ছে, যেখান থেকে পৃথিবী আবার নতুনভাবে ঘুরে দাঁড়ানো শিখছে।

তুমি আজ ছাত্র থেকে স্নাতক হলে। এখন আর শুধু নাগরিক হলে চলবে না। হতে হবে সুনাগরিক। এটাই এখন তোমার কাছে এ সময়ে দাবি। তোমাকে আদর্শ আমেরিকান হতে হবে। একজন আদর্শ নাগরিককে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য ত্যাগ করতে জানতে হয়। বর্তমানকে আমরা নানা নামে ডাকছি—মহামারিকাল, করোনাকাল, সঙ্গনিরোধকাল, নিদানকাল। সামনের কিছুদিনও হয়তো এসব ‘কাল’-এর মধ্য দিয়ে যেতে হবে আমাদের। কিন্তু তোমরা তরুণেরা, সেই সঙ্গে আমরা সবাই যদি সুনাগরিকের দায়িত্ব পালন করে যেতে থাকি, তাহলে এই সব ‘কাল’ অতীত হতে আর বেশি সময় নেবে না। আমরা তখন বুক ফুলিয়ে বলতে পারব—‘তারপর এল ভাইরাস–পরবর্তী সময়’, তারপর আমরা আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেলাম’, ‘তারপর আমরা আবার নিশ্চিন্তে ঘোরাফেরা করতে লাগলাম’। কিন্তু এই তারপরগুলো আমাদের বর্তমান কিংবা পুরোনো সময়ের মতো আর হবে না। কিন্তু আগামীর দিনগুলো কেমন হবে, তা নির্ভর করবে তোমার চেষ্টার ওপর। তোমার ডিগ্রি তোমাকে দিকনির্দেশনা দেবে, তোমার শিক্ষা তোমাকে পথ দেখাবে, তোমার পরিশ্রম তোমাকে তোমার লক্ষ্যে নিয়ে যাবে। এই ভীষণ সংকট আর অনিশ্চয়তার মধ্যে তুমি আজকের দিন পর্যন্ত এসেছ। তাই নতুন স্বাভাবিকতায় পৃথিবীকে গোছানোর কাজে তোমার চেয়ে উপযুক্ত আর কেউ হতে পারে না। তুমি অনন্য।

নতুন করে শুরু করার জন্য আমাদের অগ্রজদের মতো তোমাকে আবার শুরুতে ফিরতে হবে না। কারণ তুমিই হলে এখন শুরুর কান্ডারি। তুমি নবীন, দাঁড়িয়ে আছ কর্মজীবনের যাত্রাশুরুর একেবারে প্রথম সোপানে। তুমি অনন্য, কারণ, অনেকে যখন সব হারিয়ে আবার দ্বিতীয়বার শুরু থেকে জীবন শুরু করছে, সেখানে তুমি একেবারেই নতুন, উদ্দীপ্ত আর প্রতিশ্রুতিশীল।

প্রতিবারই সমাবর্তন পাওয়া তরুণেরা তাঁদের অগ্রজদের মতো নিজেদের নীতি-নৈতিকতাকে পুঁজি করে জীবনযুদ্ধ শুরু করেন। কিন্তু তোমরা, অর্থাৎ এ বছর যারা সমাবর্তন পাচ্ছ, শুধু নিজের জীবনসংগ্রামেই সফল হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামছ না। তোমরা যারা অনন্য, তাদের দায়িত্ব আরও বেশি। নতুন বাস্তবতায় নতুন পৃথিবী গড়ার জন্য তোমাদের প্রয়োজন। পৃথিবীর ওপর দিয়ে যা গেল, তা থেকে তোমরাই পারবে পৃথিবীকে সারিয়ে তুলতে।

মনে রেখো, ভবিষ্যৎ সব সময়ই অনিশ্চিত। কিন্তু আমরা যারা আজ তোমাদের সমাবর্তন উদ্‌যাপন করছি, আমরা এভাবেই তোমাদের প্রতিটি অর্জন উদ্‌যাপন করতে চাই। আজকের দিনে দাঁড়িয়ে এটুকু নিশ্চিত হয়ে বলতে পারি, তোমরা আমাদের নিরাশ করবে না। তোমরা অনন্য। ধন্যবাদ তোমাদের। এগিয়ে যাও।

সূত্র: অনুষ্ঠানের ভিডিও

ইংরেজি থেকে অনুবাদ: আদর রহমান।

প্র স্বপ্ন নিয়ে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন