বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এত কিছুর ভিড়ে নজর কাড়ল ডিউস বলের ক্যানভাসে আঁকা শিল্পকর্মগুলো। বাংলাদেশের ক্রিকেট তারকা মুশফিক-সাকিব-মাশরাফিদের ছবি এঁকেছেন তারিকুল। জলরং আর অ্যাক্রিলিকে বলের গায়ে তিনি এঁকেছেন আকরাম খান, হাবিবুল বাশার, গাজী আশরাফের মতো সাবেক ক্রিকেটারদের ছবিও।

default-image

এখানেই শেষ নয়; মুশফিক-সাকিবদের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের খুঁটিনাটি আর ব্যক্তিজীবনের নানা কিছু তিনি লিখেছেন পৌনে এক ইঞ্চি দৈর্ঘ্যের এক বইয়ে। ১৬০ পৃষ্ঠার এই শিল্পকর্মের পৃষ্ঠাজুড়ে আছে তারকা ক্রিকেটারদের স্কেচ, ছবিসহ নানা কিছু।

ডিউস বলে আঁকা ৫০ জন ক্রিকেটারের প্রতিকৃতি আর খুদে বইয়ে তুলে ধরা তারকাদের বীরত্বগাথা নিয়ে প্রদর্শনী করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন শিল্পী তারিকুল। তিনি বলেন, 'বগুড়ার মাটিডালি উচ্চবিদ্যালয় ঘেঁষেই ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমের পৈতৃক বাড়ি। তাঁর বাবা এই বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি। বছর তিনেক আগে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় মুশফিক এসেছিলেন। সেদিন তাঁকে আমার আঁকা পোর্ট্রেট উপহার দিয়েছিলাম, তখন থেকেই শুরু। এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের ১১ ক্রিকেটার ছাড়াও ২০ জনের প্রতিকৃতি আঁকা শেষ হয়েছে। ৫০ জনের ছবি আঁকা হলেই প্রদর্শনী করব।'

default-image

শিল্পী তারিকুল এক বছর ধরে বিশাল ক্যানভাসে শর্ষেদানায় 'মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ' তুলে ধরতে আরেকটি অনন্য শিল্পকর্ম তৈরি করছেন। স্বাধীনতার ৫০ বছর উদ্‌যাপন উপলক্ষে আগামী ১৬ ডিসেম্বর এই চিত্রকর্ম প্রদর্শনীর প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। এর আগে মিষ্টিকুমড়ার বীজে আর্জেন্টিনার ফুটবল তারকা লিওনেল মেসির ছবি এঁকে প্রশংসিত হয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তিনি একটি বিশেষ প্রদর্শনীও করেছিলেন গত বছর। সেখানে বঙ্গবন্ধুর কয়েক হাজার স্কেচসহ নানান কিছু স্থান পেয়েছিল।

বগুড়া আর্ট কলেজে পড়েছেন এই তরুণ শিল্পী। সরকারি আজিজুল হক কলেজে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকও করছেন। পড়াশোনার পাশাপাশি চারু ও কারুকলা বিষয়ে খণ্ডকালীন শিক্ষকতা করছেন বগুড়ার মাটিডালি উচ্চবিদ্যালয়ে।

তরুণ এই শিল্পীর চিত্রকর্ম নিয়ে দেশ-বিদেশে প্রদর্শনী হয়েছে। ধানমন্ডির আর্ট গ্যালারি, ময়মনসিংহে বঙ্গবন্ধু আর্ট ক্যাম্প, নেপালের কাঠমান্ডু, মিয়ানমার ও ভারতেও তাঁর আঁকা চিত্রের প্রদর্শনী হয়েছে, জিতেছেন সম্মাননা।

প্র স্বপ্ন নিয়ে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন