default-image

আমরা সবাই যে ভালোবাসার কাঙাল, সেটা খুঁজে পাওয়া আর রক্ষা করা বড় কঠিন। মুশকিল হলো, অধিকাংশ সময় আমরা ভালোবাসাকে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করি। পৃথিবীর প্রত্যেক মানুষ যেভাবে ভালোবাসাকে অনুভব করেছে, নিজের মতো করে বিশ্লেষণ করেছে, আর কোনো বিষয় নিয়েই এত কথা হয়নি। তবু আমরা কেউ–ই ঠিক বুঝতে পারি না, ভালোবাসা আসলে কী!

আপনি কখনোই একটা মানুষকে সুখী করতে পারবেন না। আপনি হয়তো কাউকে হাসাতে পারেন, ভালো লাগাতে পারেন, কিন্তু মানুষটি তাতে সুখী হবে কি না, সেটা একেবারেই আপনার নিয়ন্ত্রণে নেই। আমরা যেটাকে ভালোবাসা মনে করি, যে ভালোবাসা আমরা খুঁজি, সেটা আদৌ ভালোবাসা নয়। ভারতীয় দার্শনিক জে কৃষ্ণমূর্তি বলেছিলেন, আকাঙ্ক্ষা আর সন্তুষ্টির ভিত্তিতে আমরা ভালোবাসাকে পরিমাপ করি। অর্থাৎ তুমি যদি আমার চাহিদা পূরণ করো, তাহলে আমি তোমাকে ভালোবাসব। যদি না করো, তাহলে আমি ভালোবাসব না। অতএব এ ক্ষেত্রে ভালোবাসার ভিত্তি হলো বিনিময়। তুমি যদি আমার আকাঙ্ক্ষা পূরণ করো, যদি আমাকে সন্তুষ্ট করো, তাহলে আমি তোমাকে ভালোবাসি। তোমাকে দিয়ে আমার আকাঙ্ক্ষা পূরণ হলো না, আমি সন্তুষ্ট হতে পারলাম না, তার মানে ভালোবাসি না।

বিজ্ঞাপন

আকাঙ্ক্ষার ধরনটাই এমন। আমরা চাই, কেউ আমার চাওয়াগুলো পূর্ণ করুক। কিন্তু এই আকাঙ্ক্ষা ধীরে ধীরে আমাদের মধ্যে রাগ, হতাশা তৈরি করে। দুজন মানুষকে আলাদা করে দেয়। আমাকে সত্যিকার ভালোবাসা শিখিয়েছে আমার মেয়ে উইলো। ভালোবাসার প্রকৃত উদাহরণ হতে পারে—ফুলের জন্য একজন মালির ভালোবাসা। একজন মালি যখন ফুলগাছের যত্ন নেন, তিনি চান না ফুলটা তাঁর ইচ্ছেমতো বেড়ে উঠুক। তিনি চান, ফুলগাছ ফুলগাছের মতোই পরিস্ফুটিত হোক। আপনার চাহিদা, আপনার অহংবোধকে পূর্ণতা দেওয়ার জন্য কিন্তু ফুল ফুটবে না। যদি আপনার ইচ্ছেমতো ফুটবে বলে আপনি ফুলগাছের যত্ন নেন, তাহলে সেটা ভালোবাসা নয়।

আমি ভালোবাসার একটা সংজ্ঞা দাঁড় করিয়েছি, যেটা আমার খুব কাজে এসেছে। আমি LOVE-কে বলি LUV। এর মানে হলো Listen (শোনো), Understand (বোঝো) ও Validate (সমর্থন দাও)। অর্থাৎ যা শুনেছ, তা বোঝো এবং সমর্থন করো। মানুষের কথা শোনা একটা সুপারপাওয়ারের মতো। যদি সব সময় বলতে চাই, তাহলে কিন্তু আমার আর কিছু শোনা হবে না। অন্যের কথা মন দিয়ে শুনলে একটা বন্ধনের শক্তি তৈরি হয়। কারও কথা শুনতে হলে নিজের ভাবনা, নিজের চাওয়া, নিজের আকাঙ্ক্ষাগুলোকে কিছুক্ষণের জন্য চুপ করিয়ে দিতে হয়। তাহলেই আমরা বুঝতে পারি, মানুষটি আসলে কী বলতে চাচ্ছেন। আমি যা বলছি তা অপরদিকের মানুষ বুঝতে পারছে—মানুষ হিসেবে আমাদের কাছে এর চেয়ে স্বস্তিদায়ক আর কিছু হতে পারে না।

শোনা ও বোঝার পর তৃতীয় কাজটি হলো সমর্থন করা। হ্যাঁ, আমি বুঝতে পেরেছি। তোমার কথা আমি মন দিয়ে শুনেছি। ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্য এই সমর্থন করা খুব জরুরি।

তবে ভালোবাসার মূল হলো সাহায্য করা। আমাদের সবাইকেই কঠিন সময় পার করতে হয়। ভালোবাসা মানে হলো আরেকজনকে নিশ্চয়তা দেওয়া—তোমার জীবনসংগ্রামে আমি পাশে থাকব। কঠিন সময়ে তোমাকে যেন কম ভুগতে হয়, তোমার মন আর অনুভূতিগুলো যেন নিয়ন্ত্রণে থাকে, সে জন্য সাহায্য করব।

ভালোবাসা হলো ভালোবাসার মানুষের ভালো থাকা, তাঁকে নিজের মতো করে বেড়ে উঠতে দেখার আকাঙ্ক্ষা। আপনি যখন কাউকে ভালোবাসেন, আপনি চান সে সুখে থাকুক, সফল হোক। ভালোবাসা তখনই সার্থক হবে, যখন আপনি তাঁর আশা, স্বপ্ন, ভয়, চাওয়া, আতঙ্কগুলো বুঝবেন। ভালোবাসার মানুষের বেড়ে ওঠার জন্য জীবনের উপহারগুলো ভাগাভাগি করে নেওয়াই ভালোবাসা।

(ইংরেজি থেকে অনুদিত)

বিজ্ঞাপন
প্র স্বপ্ন নিয়ে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন