বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্বপ্নের ক্লাব নিয়ে ভবিষ্যৎ–ভাবনা জানতে চাইলে ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নজরুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকা কলেজ ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাবের সদস্যরা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করবে বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে। এ ক্লাবের সদস্যরা দেশের মধ্যে সঠিক ইংরেজি চর্চার বিকাশে কাজ করছেন। ক্লাবের কার্যক্রমের পরিধিও ভবিষ্যতে আরও বাড়বে বলে বিশ্বাস করি। ফলে ক্লাবের সদস্যরা সার্বিক ইংরেজির দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি নেতৃত্বচর্চার মাধ্যমে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারবে। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে দক্ষতার দিক থেকে যে পার্থক্য দেখা যায়, সেটিও কমে আসবে বলে মনে করি।’

default-image

সরকারি তিতুমীর কলেজ ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব

২০১৮ সালে সরকারি তিতুমীর কলেজের ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হন জাহিদ হাসান। ভর্তির কিছুদিন পর উপলব্ধি করেন, নিজে ইংরেজির ছাত্র হওয়া সত্ত্বেও সত্যিকার অর্থে ইংরেজি চর্চার সুযোগ তিনি পাচ্ছেন না। কেননা, পাঠ্যবইয়ের ইংরেজি শুধুই পরীক্ষানির্ভর। তখন ইংরেজির দক্ষতা বাড়ানোর জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন, আর স্বপ্নটা ভাগাভাগি করে নেন বন্ধু মামুন হোসাইনের সঙ্গে। দুজনের উদ্যোগে ২০১৯ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি কলেজে শুরু হয় ‘ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব’–এর যাত্রা।

‘মেক ইয়োর ইংলিশ বেটার দ্যান বিফোর’ হলো ক্লাবের মূলমন্ত্র। শিক্ষার্থীদের আগ্রহ ও সংগঠনের সক্রিয়তা দেখে আনন্দিত কলেজের শিক্ষকেরাও। কয়েক শিক্ষক প্রত্যক্ষভাবেও এ ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত। বর্তমানে ক্লাবের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করছেন কলেজের ইংরেজি বিভাগের তিন শিক্ষক। সংগঠনের কাজ আরও ত্বরান্বিত করতে মামুন হোসাইনকে সভাপতি ও জাহিদ হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে গড়ে উঠেছে ২১ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটি। বর্তমানে প্রায় ৩৫০ সদস্য ক্লাবে সক্রিয়ভাবে ইংরেজি চর্চা করছেন।

যাত্রা শুরুর পর থেকে ক্লাবটি সরকারি তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে অফলাইন ও অনলাইনে ৯৮টি সাপ্তাহিক অধিবেশন আয়োজন করেছে। ক্লাবের কার্যক্রমকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে ওয়েবসাইটও তৈরি করা হয়েছে।

সাপ্তাহিক এসব কার্যক্রমের বাইরে বেশ কিছু মাসিক কার্যক্রমও পরিচালনা করে এই ক্লাব। ইংলিশ রাইটিং কমপিটিশন, পাবলিক স্পিকিং কমপিটিশন, ইংরেজি সাহিত্য আড্ডা, গ্রামার অ্যান্ড ভোকাবুলারি কুইজসহ নানামুখী আয়োজনে থাকে পুরস্কারের ব্যবস্থাও। ফলে শিক্ষার্থীরাও আগ্রহভরে অংশ নেন এসব প্রতিযোগিতায়। ক্লাবকে ইংরেজি চর্চার একটি উন্মুক্ত মঞ্চ হিসেবে গড়ে তুলতে চান কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি মামুন হোসাইন। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য—শুদ্ধ ও সাবলীলভাবে ইংরেজি ভাষা নিজে শেখা এবং অন্যকে শেখানো। সরকারি তিতুমীর কলেজে ইংরেজি শেখার একটা পরিবেশ গড়ে তোলার জন্যও আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’ সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান যোগ করলেন, ‘ইংরেজি চর্চার পাশাপাশি আমরা এখানে নেতৃত্বচর্চার সুযোগ পাচ্ছি, যা কর্মক্ষেত্রে আমাদের এগিয়ে রাখবে বলে আশা রাখি।’

প্র স্বপ্ন নিয়ে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন