বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনলাইন ভর্তি মেলার প্রথম আয়োজনে অংশগ্রহণ করেছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি (আইইউবিএটি), কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, সিটি ইউনিভার্সিটি, ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব), অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, কুমিল্লার সিসিএন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি), ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি চট্টগ্রাম, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি এবং ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি। আয়োজকেরা জানিয়েছেন, প্রথমবারেই অনলাইন ভর্তি মেলায় বেশ ভালো সাড়া পাওয়া গেছে। দুই লাখের বেশি মানুষ মেলা চলাকালে ওয়েবসাইটে ঢুঁ মেরেছেন। ভর্তি সম্পর্কে আরও তথ্য জানতে ই–মেইল করেছেন ৫২১ জন।

অনলাইন ভর্তি মেলায় অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা জানালেন ঢাকার ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ইউআইইউ) উপাচার্য চৌধুরী মোফিজুর রহমান। তিনি বলেন, ‘এক প্ল্যাটফর্মে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছে, এটা তো নিশ্চয়ই একটা ভালো উদ্যোগ। মহামারি আমাদের কোথায় নিয়ে যাচ্ছে, সেটা বলা মুশকিল। এই দুর্যোগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নতুন নতুন উদ্ভাবনী ভাবনার বাস্তবায়ন খুব জরুরি। আমি মনে করে, মহামারি চলে গেলেও প্রতিবছর এ রকম আয়োজন করা উচিত।’

অনলাইনে নিয়মিত ভর্তি মেলা আয়োজনের প্রত্যাশার কথা জানালেন প্রথম আলো ডিজিটালের হেড অব বিজনেস জাবেদ সুলতানও। তিনি বলেন, করোনা মহামারির এই সময়ে ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সামনে একসঙ্গে ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য উপস্থাপন করাই ছিল এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। আমরা এ ধরনের আয়োজন নিয়মিত করার চেষ্টা করব।’

প্র স্বপ্ন নিয়ে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন