default-image

চার্জার ছাড়াই যখন নতুন আইফোন বাজারে ছাড়ল অ্যাপল, সেদিন খুব একচোট হেসেছিল স্যামসাং। মজা করে ফেসবুকে লিখেছিল, ‘আপনারা যা চান, গ্যালাক্সি স্মার্টফোনের সঙ্গে আমরা তার সবকিছুই দিয়ে থাকি।’ সঙ্গে চার্জারের ছবি।

পরে সে ছবিসহ পোস্টটি সরিয়ে ফেলে স্যামসাং। আর সেদিনই সবাই বুঝে গিয়েছিল, অ্যাপলের পথেই হাঁটছে তারা। যা কিছু সন্দেহ ছিল, গ্যালাক্সি এস২১ স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ঘোষণার সঙ্গে তা-ও দূর হয়েছে। আর এখন শোনা যাচ্ছে, শুধু গ্যালাক্সি এস২১ নয়, স্যামসাংয়ের পরবর্তী স্মার্টফোনগুলোর সঙ্গেও থাকবে না চার্জার কিংবা ইয়ারফোন।

default-image

ব্যাপারটি এখন কেবল আর উড়ো খবরের পর্যায়ে নেই। গ্যালাক্সি এস২১ সিরিজের স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর প্রশ্নোত্তর অংশে স্যামসাংয়ের নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট প্যাট্রিক শোমেত তা নিশ্চিতও করেছেন। তাঁর ভাষ্য, মানুষের স্মার্টফোনের বাক্স থেকে ক্রমে চার্জার প্লাগ এবং ইয়ারফোন সরিয়ে ফেলার কারণ হলো মানুষের প্রয়োজন নেই, অযথা এমন অনুষঙ্গ না দেওয়া।

বিজ্ঞাপন

কারণ কী

স্যামসাংয়ের কারণ অনেকটা অ্যাপলের মতোই। আইফোন ১২ সিরিজের স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার সময় অ্যাপল বলেছিল, বাক্সে চার্জিং অ্যাডাপ্টর না থাকলে বাক্সের আকার ছোট হবে। একসঙ্গে আরও বেশি স্মার্টফোন পরিবহন করা সম্ভব হবে। এতে কার্বন নির্গমনের হার কমে যাবে। আরেকটি যুক্তি হলো আগের স্মার্টফোনের সঙ্গে যে চার্জার পাওয়া গিয়েছিল, নতুন ফোনে সেটিই ব্যবহার করা যাবে। অযথা নতুন চার্জারের প্রয়োজন নেই। এতে খনিজ দ্রব্যের আহরণ ও ব্যবহার কম হবে। তা ছাড়া তারহীন চার্জিং প্রযুক্তিও জনপ্রিয় হচ্ছে।

default-image

স্যামসাংও একই যুক্তি দেখিয়ে বলেছে, ২০১৭ সাল থেকেই ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্টের স্মার্টফোন বানাচ্ছে তারা। ফলে আগের চার্জারই নতুন গ্যালাক্সি স্মার্টফোন বা ট্যাবে ব্যবহার করা যাবে। ‘ভালো খবর’ হলো চট করে স্মার্টফোনের বাক্স থেকে চার্জিং অ্যাডাপ্টর সরিয়ে ফেলছে না স্যামসাং। কাজটি তারা করবে ক্রমে ক্রমে।

একটু থামুন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন