ফেসবুকে ইভেন্টের পরিচিতি অংশে বলা হয়েছে ‘২০১৪ ফুটবল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছ থেকে অকুণ্ঠ সমর্থন পেয়েছে হন্ডুরাস। এখন আমাদের পালা! চলুন আসন্ন ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে সমর্থন করি! দুই দেশ, এক হৃদয়!’

default-image

গত বছর ফুটবল বিশ্বকাপের সময় হন্ডুরিয়ানদের চমকে দিয়েছিলেন বাংলাদেশি তরুণেরা। কারণ, হাজার মাইল দূরে বাংলাদেশি তরুণেরা ফেসবুকে ইভেন্ট পেজ খুলেছিল হন্ডুরাস ফুটবল দলের সমর্থনে। 
শুধু তা-ই নয়, তাদের প্রতি ভালোবাসার বার্তা পৌঁছে দিতে তৈরি করা হয়েছিল একটি ভিডিও, যা হন্ডুরাসের সংবাদমাধ্যমগুলোয় প্রচার করা হয়েছিল ফলাও করে। আর তাতেই সাড়া পড়ে গিয়েছিল মধ্য আমেরিকার ছোট্ট দেশটিতে। তারপর দুই দেশের তরুণদের নিজেদের সংস্কৃতির আদান-প্রদানের একটি বড় মাধ্যম হয়ে উঠেছিল সেই পেজ। এমন বন্ধুত্বের দাম দিতে এবার হন্ডুরিয়ানরা হাজির হয়েছে ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সমর্থনে।
‘হন্ডুরাস সাপোর্টস বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম: দ্য টাইগার্স’ নামে ফেসবুকে ইভেন্ট পেজ খুলেছেন হন্ডুরাসের মেয়ে নোহেলিয়া এসকোবার।

default-image

ইভেন্টের পরিচিতি অংশে বলা হয়েছে, ‘২০১৪ ফুটবল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছ থেকে অকুণ্ঠ সমর্থন পেয়েছে হন্ডুরাস। এখন আমাদের পালা! চলুন, আসন্ন ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে সমর্থন করি! দুই দেশ, এক হৃদয়!’ তাঁদের নিজস্ব ভাষায় লেখা এমন পরিচিতির সঙ্গে বাংলায় যুক্ত করেছে, ‘লড়াই করে এবার লড়তে হবে, টাইগারদের এবার বিশ্বকাপ জিততে হবে!’
আর তাতে বাংলাদেশের প্রতি ভালোবাসা নিংড়ে দিচ্ছেন হন্ডুরাসের তরুণেরা। শুধু হন্ডুরাসের তরুণেরাই নন, বাংলাদেশের মাশরাফি-সাকিবদের সমর্থন জোগাতে সেখানে মন্তব্য করছেন আরও অনেক দেশের নাগরিক। যেমন সাহিলা মানজা নামের ইন্দোনেশিয়ার এক তরুণী মন্তব্য করেছেন, ‘আমি সব সময় বাংলাদেশকে সমর্থন করি, আমি ইন্দোনেশিয়ান কিন্তু বাংলাদেশ আমার পছন্দের দল। তোমাকে ভালোবাসি বাংলাদেশ। এগিয়ে যাও টাইগার।’
এরই মধ্যে হন্ডুরাসের আল হেরাল্ড পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে এই ইভেন্ট সম্পর্কে খবর ছেপেছে।
ভিনদেশি নাগরিকদের ভালোবাসায় সিক্ত ফেসবুক ইভেন্ট পেজে (HTTP://GOO.GL/W5OJAS)
আপনিও ঘুরে আসতে পারেন।

বিজ্ঞাপন
জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন