default-image

শুরু হয়ে গেছে পুরান ঢাকার জমজমাট ইফতার আয়োজন। অলিগলি ভরে উঠেছে নানা স্বাদের খাবারে।
সেরা স্বাদের লাবাং পান করতে হলে আপনাকে যেতে হবে পুরান ঢাকার লালবাগ এলাকার রয়েল রেস্তোরাঁয়। এক বোতল লাবাং পাবেন ১৬০ টাকায়। এখানকার পেস্তাবাদামের শরবত, চিকেন টিকিয়া, শাহি পরাটা, কাশ্মীরি নান ও মিসৌরি নান এবং হালিমও ভোজনরসিকদের কাছে সমান জনপ্রিয়। পেস্তাবাদামের শরবত এক লিটার ২২০ টাকা, শাহি পরাটা ৩০ টাকা প্রতিটি, কাশ্মীরি ও মিসৌরি নানের দাম যথাক্রমে ৫০ টাকা ও ১০০ টাকা, আর চিকেন টিকিয়া বিক্রি হয় অর্ধেক ১৭০ টাকায়।

default-image

মামা হালিম, ডিসেন্টের হালিম, স্টার বা আল-রাজ্জাক ও রয়েলের হালিমের নামডাক থাকলেও ভোজনরসিকদের মন জয় করে নিয়েছে গাউছিয়ার হালিম। ৫৫ টাকা মূল্যের এক বাটির গাউছিয়া হালিম রমজান মাসে পাবেন না। এখন হালিম বিক্রি হয় মাটির হাঁড়িতে। এক হাঁড়ি হালিমের দাম পড়বে ২২০ থেকে ১৩৭৫ টাকা।
হালিমের মতোই দইবড়া রমজান মাসের অন্যতম জনপ্রিয় খাবার। আল-রাজ্জাক, স্টার, আল-ইসলামসহ পুরান ঢাকার অনেক রেস্তোরাঁতেই দইবড়া পাবেন। তবে রয়েলেরটাই বেশি জনপ্রিয়। এখানে এক বাটিতে চারটি দইবড়া বিক্রি হয় ১২০ টাকায়।
অনেক ভোজনরসিক মনে করেন, বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর বিখ্যাত পূর্ণিমা স্ন্যাকসের জিলাপি না খেলে জীবনটাই বৃথা। পূর্ণিমায় ১ কেজি জিলাপি বিক্রি হয় ১২০ টাকায়। স্টার হোটেলের এক বাটি ফালুদার মূল্য ৫৫ টাকা।
ইফতারের খাদ্যতালিকায় স্টারের ফালুদা যেমন চাই, তেমনি এখানকার খাসির ঝুরা মাংস ও খাসির লেগ রোস্ট ইফতারের তালিকায় থাকতেই হবে অনেকের। খাসির ঝুরা মাংস এক কেজি বিক্রি হয় ৫৪০ টাকায়। আর একটি লেগ রোস্টের মূল্য ২৬০ টাকা। এ বছর ইফতারের নতুন সংযোজন হলো বাটার নান। বাটার নান পাবেন পুরান ঢাকার বিভিন্ন রেস্তোরাঁয়। এর মধ্যে অন্যতম হলো ক্যাফে ইউসুফ ও আল-ইসলামের বাটার নান।
ইফতারের মূল তৃপ্তি হচ্ছে ঠান্ডা পানীয়তে। প্রায় সবাই ইফতারে লেবুর শরবত, পুদিনার শরবত, বেলের শরবত, তোকমা বা ইসবগুলের ভুষিকে প্রাধান্য দিলেও ইফতারে রায়সাহেব বাজারের বিউটির শরবত ও চকের নূরানীর লাচ্ছির জুড়ি মেলা ভার। এক গ্লাস বিউটির শরবতের দাম ১৫ টাকা, আর নূরানীর লাচ্ছি বিক্রি হয় ২৫ টাকায়।
ইফতারে ছানা, মাখন ও মাঠা খাওয়ার প্রচলন সেই আদিকাল থেকে। ছানা, মাঠা ও মাখন সারা দেশে পাওয়া গেলেও পুরান ঢাকার আদি মরণচাঁদের মাঠা ও ছানার তুলনা হয় না। এক গ্লাস মাঠার মূল্য ২৫ টাকা আর ছানা পাবেন ২০ টাকায়। তবে ইদানীং আধা লিটার থেকে শুরু করে নানা আকারের বোতলে মাঠা পাওয়া যায়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন