মাহতাব উদ্দিন আহমেদ রবির প্রথম বাংলাদেশি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও)। বলা যায়, কোনো বিদেশি মোবাইল অপারেটর কোম্পানির প্রথম বাংলাদেশি সিইও হিসেবে তিনিই দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তিনি রবির চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) হিসেবে যোগদান করেন এবং ২০১৪ সাল পর্যন্ত একই পদে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর এপ্রিল ২০১৪ থেকে ২০১৬ সালের মার্চ পর্যন্ত তিনি একই কোম্পানির চিফ অপারেটিং অফিসার ছিলেন।

রবিতে যোগ দেওয়ার আগে মাহতাব ১৭ বছর ধরে ইউনিলিভারের সঙ্গে কাজ করেছেন। সেখানে তিনি বিভিন্ন ব্যবসায়িক ও অর্থসংক্রান্ত নেতৃস্থানীয় অবস্থানে ছিলেন। যেমন: ইউনিলিভার পাকিস্তান, ইউনিলিভার অ্যারাবিয়া ও ইউনিলিভার বাংলাদেশের মতো অপারেটিং কোম্পানিগুলোয় ফিন্যান্স ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেছেন।

default-image

মাহতাব উদ্দিন বর্তমানে অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশের (অ্যামটব) সহসভাপতি এবং ফরেন ইনভেস্টর’স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফআইসিসিআই) এক্সিকিউটিভ কমিটি মেম্বার।

হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের অ্যালামনি মাহতাব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাববিজ্ঞানে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন। তিনি ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউনট্যান্ট অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি), এফসিএমএ ও সিজিএমএ অব চার্টার্ড ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টসের (সিআইএমএ, ইউকে) সম্মানিত একজন সদস্য।

শিক্ষাগত, পেশাগত ও পারিবারিক জীবনেও সফল মাহতাব উদ্দিন আহমেদ ব্যক্তিগতভাবেও বিশ্বাস করেন, আজকের তরুণসমাজ অনেক সম্ভাবনাময়। আজকের তরুণেরাই একেকটি রবি বা সূর্য। যারা আপন শক্তিতে জ্বলে উঠবে এবং বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

সেই লক্ষ্যে মাহতাব উদ্দিন আহমেদ আপনাকে ডাকবেন সকালের নাশতায়। চায়ের সঙ্গে গল্প হবে। শুনবেন তাঁর সফলতার কথা। আপনার গল্পটাও বলা হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে জেনে নেবেন আপনার জন্য সফল এই ব্যক্তির পরামর্শ। জীবন, পেশা, সফলতা-ব্যর্থতা, পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে স্বপ্ন-আড্ডার এই চায়ের টেবিলে আপনি আসছেন তো? তাহলে নিবন্ধন করে ফেলুন আগামী ২৫ জানুয়ারির মধ্যে। নিবন্ধন করুণ এখানে। 

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0