ডা. মৌসুমী মরিয়ম সুলতানা

কিডনির কাজ হচ্ছে দেহে বিপাক-উৎপন্ন-বর্জ্য বা দূষিত পদার্থকে নিষ্কাশন করা, যার অন্যতম হলো ইউরিয়া। এ ছাড়া শরীরে পানি, লবণ, অম্ল ও ক্ষারের ভারসাম্য বজায় রাখা এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখাও কিডনির কাজ। কিডনি বিকল হলে দেখা দিতে পারে জরুরি প্রাণসংহারী অবস্থা।

কীভাবে বুঝবেন?

হঠাৎ করে প্রস্রাবের পরিমাণ অস্বাভাবিক কমে যাওয়া এবং মুখ, পাসহ শরীরে পানি আসা কিডনি বিকলের প্রধান লক্ষণ। এ ছাড়া বমি ভাব, বমি, অরুচি, মাথাব্যথা এমনকি বুকে পানি জমে শ্বাসকষ্ট হতে পারে। কোনো লক্ষণ আদৌ না থাকতে পারে। পরীক্ষায় আকস্মিকভাবে রক্তে ইউরিয়া ও ক্রিয়েটিনিন বেড়ে যায়। তারপর উপসর্গ অনুযায়ী কারণ অনুসন্ধান করতে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন হবে।

চিকিৎসা জরুরি

আকস্মিক কিডনি অকার্যকর হলে চিকিৎসা অবশ্যই জরুরি ভিত্তিতে করতে হবে এবং এ জন্য রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হবে। বিশেষ সতর্কতার সঙ্গে পানি ও স্যালাইনের ব্যবহার, নিবিড় পর্যবেক্ষণ ও প্রয়োজনে ডায়ালাইসিসের দরকার হয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে কারণটি দূর করা গেলে চিকিৎসার মাধ্যমে কিডনি আপন কার্যকারিতা ফিরে পায় এবং পরে ডায়ালাইসিসের আর দরকার হয় না। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে স্থায়ীভাবে কিডনি অকার্যকর হয়ে যেতে পারে। l মেডিসিন বিভাগ, ইউনাইটেড হাসপাতাল।

বিজ্ঞাপন
জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন