default-image

ভালোবাসা আর প্রেমের আবেগ কিশোর-কিশোরীদের বাঁধনহারা করে তুলতে পারে। অপরিণত বয়সে প্রেমের উচ্ছ্বাসে ভেসে গিয়ে যদি ওরা ভুল করে বসে, তাই এ বয়সের সন্তানদের নিয়ে চিন্তিত থাকেন অভিভাবকেরা। আর ভ্যালেন্টাইনস ডের মতো উৎসবের দিনে এমন বাঁধনহারাদের সামলে রাখতে তৎপর নগর কর্তৃপক্ষও। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের নগরপালের দপ্তর তাই দিনটিকে ঘিরে জারি করা নানা বিধিনিষেধের সঙ্গে একটি পরামর্শও দিয়েছে। তাদের পরামর্শ—‘ভালোবাসা দিবসে মন্দিরে যাও, সেটাই ভালো।’

‘টিনেজাররা যদি একে অপরকে ভালোবাসতেই চায়, তাহলে ওদের জন্য মন্দিরে যাওয়াই ভালো, নয়তো ওরা পাখি মুক্ত করুক, সরোবরে মাছ ছাড়ুক।’ ব্যাংকক নগরপাল দপ্তরের কর্মকর্তা পিরাপং সাইচেওয়া এভাবেই বার্তা সংস্থা রয়টার্সের কাছে কিশোর-কিশোরীদের জন্য ওই পরামর্শ দিয়েছেন।

অবশ্য ব্যাংককের নগরকর্তাদের এ পরামর্শের একটা বিশেষ সামাজিক পরিপ্রেক্ষিত আছে, অভিভাবকেরাও সে কারণেই উদ্বিগ্ন। পশ্চিমা সংস্কৃতির দাপটে বিগত দশকগুলোতে ভ্যালেন্টাইনস ডে পর্যটকবান্ধব দেশটিতে তুমুল জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এদিন ব্যাংকক সত্যিকার অর্থেই এক মহোৎসবের নগরে পরিণত হয়। লাগামহীন পার্টি-আড্ডায় সবাই ব্যস্ত থাকে এবং কিশোর-কিশোরীরাও ভালোবাসার আবেগে হারায়। দেশটির গণমাধ্যমের জরিপে উঠে এসেছে অনেক টিনেজারই এই দিনটিকে বেছে নেয় নিজেদের প্রথম যৌন-অভিজ্ঞতার জন্য।

default-image

কিন্তু দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের হিসাবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে থাইল্যান্ডেই টিনেজারদের মধ্যে গর্ভধারণের হার সবচেয়ে বেশি। এই পরিস্থিতি সামাল দিতে এ বছর দেশের ৬৮টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে এবং ১০টি নগর হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ প্রায় ৩৫ লাখ কনডম বিনা মূল্যে বিতরণের জন্য দিয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তো স্কুলগুলোতেই কনডম ভেন্ডিং মেশিন বসানোর প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু অভিভাবকেরা বলছেন, সেটা করা হলে ছেলেমেয়েদের যৌনতার প্রতি আরও উৎসাহিত করা হবে। তাই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হয়নি।

এমন অবস্থার মধ্যেই এবার থাইল্যান্ডে ভ্যালেন্টাইনস ডে পালিত হচ্ছে। আর নগর কর্তৃপক্ষও টিনেজারদের বলছে, ভালোবাসা দিবসে মন্দিরে যাও, পায়রা উড়াও, সরোবরে মাছ ছাড়ো, কিন্তু নিজেদের যৌনতায় জড়িয়ো না। বৌদ্ধ রীতি অনুসারে খাঁচাবন্দী পাখি মুক্ত করা নিজেদের আত্মিক উন্নতির এবং কর্মসিদ্ধির একটা দারুণ পথ। পশ্চিমা ধাঁচের নাইটক্লাব-সমকামীদের বার ব্যবসায়ের জন্য প্রসিদ্ধ হলেও বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ থাইল্যান্ডের সমাজ অনেকটাই রক্ষণশীল।

বিজ্ঞাপন
জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন