default-image

আমরা বাঙালি অতি আবেগপ্রবণ প্রাণী। সব আবেগই যে ভালো, তা নয়! অতি আবেগে আমরা সন্তানদের খুব ভালোবাসা দিতে চাই! বেস্ট ড্রেস, বেস্ট মেকআপ! ইভেন ছোট বাচ্চাদেরও মেকআপ, স্পেশালি মেয়েগুলো! হ্যাঁ, ওরা অনেক কিউট, পরির বাচ্চা, জীবন্ত পুতুল! মেকআপ দিলে তো চোখ নামানো যায় না! একটু ব্রেক কষুন!

পেডোফাইল কি জানেন? নারে ভাই, নখ কাটার মেশিন না!

পেডোফাইল হচ্ছে বিকৃতমনা মানুষ, যাদের যৌন সুড়সুড়িই লাগে বাচ্চাদের দেখলে!

আপনার আমার কাছে সেটা বিকৃত, কিন্তু এরা আপনার আমার চারপাশেই! হতে পারে সেটা আপনারই ভাই, বন্ধু, মামা, কাকা, খালু, দাদা, নানা, বয়ফ্রেন্ড, হাজব্যান্ড অথবা বাবাই! শিওর এই লাইনটা পড়েই অনেকেই আমাকে গালি দিয়ে ফেলেছেন! একটু ভাবুন!

এই পেডোফাইল অসামাজিক জীব নয়, আপনার বাচ্চাটা এদের হাতের নাগালে, ছুঁতে পারে, চুমু খেতে পারে..গায়ে অযথাই যখন–তখন হাত দিতে পারে...চর্মচক্ষে সেটা স্বাভাবিকও লাগতে পারে! না আমি বলছি না সবাইকে সন্দেহ আর অবিশ্বাস করা শুরু করুন, মানসিক রোগীর মতো! কিন্তু যেহেতু এরা আপনার বিশ্বস্ত আর বাচ্চারা এদের নাগালের মধ্যে, একটু সতর্ক হোন! চোখ–কান খোলা রাখুন।

কোনো বাচ্চা যদি হুট করে পরিবারের কারও সঙ্গে মিশতে না চায়, দেখলে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পরে—থামুন! ফুলস্টপ!

বাচ্চাটাকে শাস্তি না দিয়ে, বন্ধু হয়ে কারণ অনুসন্ধান করুন! বলতে নাও পারে, চোখ–কান, মনের পর্দা তুলুন, সময় দিন।

অনেক সময় আপনার পরিস্থিতি এমন হতে পারে যে অবিবেচক পেডোফাইলকে আপনার সঙ্গেই রাখতে হবে, সে ক্ষেত্রে খুব সাবধান...আপনার বাচ্চার রক্ষা করার দায়িত্ব আপনার! এই লোকদের আপনার বাচ্চার কাছ থেকে হাজার মাইল দূরে রাখুন যেভাবে পারেন।

বাচ্চাদের মেকআপ অথবা পরি সাজাতে যাবেন না! বাচ্চাকে তার চাইল্ডহুড এনজয় করতে দিন! মনে রাখবেন, বাচ্চাটা পরি, মহিলা কিছুই সাজতে চায় না, সেটা আপনার খায়েশ, আর এই খায়েশের বলি হতে পারে আপনার প্রাণপ্রিয় সন্তান! আর পেডোফাইলদের যদি দুর্বল মুহূর্ত আসে, আর তার হাতের নাগালে সবচেয়ে অবলা বা দুর্বল প্রাণীটি কে?

ভাবুন, ভাবুন! বাঘের শিকার মিস হয় মাঝেমধ্যে, যদি হরিণটি চালাক হয়, দ্রুতবেগে পালাতে পারে! আপনার বাচ্চার সেই ক্ষমতা নেই!

নারীরা ভাবুন, আপনি নিজ বিবাহিত জীবনে কতবার হাজব্যান্ড কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন! আচ্ছা বুঝিয়ে বলি। হাজব্যান্ড আপনার প্রাণপ্রিয়, তারও আপনি অন্তঃপ্রাণ! তারপরও যেসব দিন আপনি আসলেই ক্লান্ত, কোনো শারীরিক সম্পর্কেই আগ্রহী নন, কিন্তু আপনার হাজব্যান্ড যদি আপনার অমত সত্ত্বেও তাঁর পৌরুষের চাহিদা মেটাতে চান? আমি একে ভালো–মন্দ কিছুই বলব না! শুধুই উদাহরণ!

এখন ভাবুন এই লোকগুলোর পুরুষত্বের কাছে সেই মুহূর্তে আপনার আদরের সন্তান কতটা অসহায়! প্লিজ বিশ্বস্তজন কেউ ছাড়া আপনার সন্তানকে একা ছাড়বেন না! আমার কথাগুলো আপনার কাছে অপরিচিত লাগলেও, আমার কথা আপনার ভালো না লাগলেও, আপনার বাচ্চাটিকে বাঁচান!

কোটি মানুষের দুনিয়ায় সবাই খারাপ, শুধু সুযোগের অপেক্ষায়, এটা ভাবলেই নিজেদের সন্তানদের ভালো রাখবেন। আর শুধু মেয়েটিই নয়, আপনার ছেলেটিও কিন্তু সেফ নয়! তাকেও সাবধানে রাখুন।

বিজ্ঞাপন
দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন