আমি যে স্বপ্ন দেখতে জানি না তা কিন্তু নয়

আমি স্বপ্ন দেখি না পেয়ে স্বপ্ন ভাঙার ভয়
স্বপ্ন আমি দেখেছিলাম বায়ান্নতে বাংলা ভাষায় কথা বলার আধিকার নিয়ে
আদায়ও করেছিলাম বুকের তাজা রক্ত রাজপথে ঢেলে
যার ফল ভোগ করল আমার বিধবা মা বিনা চিকিৎসায় অন্যর আশ্রয়ে থেকে মরে
তা–ও ভালো, মায়ের আমার আশ্রয় মিলেছিল বেপারি সাহেবের খুপরি ঘরে
চিননি আমায় আমি শহীদ জব্বার যার নামে নাকি আজ দালান উঠেছে আমার প্রিয় ক্যাম্পাসে
সালাম, বরকত, রফিকের সাথে এখন আমি দেই আড্ডা
সেখানে থাকে না তোমাদের বাংলিশ মিশ্রিত কোনো রসময় বিষয়, আমরা আসলে ভুগি উৎকণ্ঠায়
বাংলা সর্বস্তরে চালুর জন্য যে জায়গাতে দিয়েছিলাম মোরা জীবন
সেই ঢাবিতেই নাকি বাংলাচর্চা নাই, দাপ্তরিক ভাষা বাংলা, তা তো মৃতপ্রায়
তাইতো আমরা স্বপ্ন দেখতে পাই ভয়।

স্বপ্ন দেখেছিলাম ৬৬–তে যার জন্য বাঁচিয়েছিলাম নিজ শিষ্যরে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা হতে
বিনিময়ে স্বাধীন বাংলার প্রথম রাজবন্দী হতে হয়েছিল আমারই সেই শিষ্যরই হাতে
বুঝনি তুমি আমি মজলুম জননেতা হামিদ খান ভাসানি যে
দেখেছিলাম স্বপ্ন এই বাংলাটারে নিয়ে যাকে মনের মতো করে সাজাব বলে জীবনভর করেছিলাম সংগ্রাম
সেই বাংলাতেই আমি নাকি এক অসফল নেতার নাম

বিজ্ঞাপন
দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন