default-image

ছোট সময়ের লুকোচুরি খেলার কথা মনে পড়ে গেল কেপটাউনে স্টার্ক আয়রিস গার্ডেন সেন্টারে গিয়ে। ভেতরে পা ফেলে একটু একটু করে এগোচ্ছি আর বাগান থেকে উঠে দাঁড়াচ্ছেন একজন করে মালি। এটি এক‌ নার্সারির কথা বলছি।
কেপটাউনের চারদিকে সমুদ্র, এ কূল থেকে ও কূল দেখা যায় না। সময় পেলেই এ দেশের মানুষের চারিত্রিক স্বভাব সমুদ্রে ঘুরতে যাওয়া। বিভিন্ন দেশ থেকে আসা প্রবাসীদের প্রবাহিত শখ ওই একই।

বিজ্ঞাপন

আমি এই নার্সারিতে এই নিয়ে চতুর্থবার ঘুরতে এলাম। প্রথমবার এসেছিলাম দুই কেজি উর্বর মাটি নিতে। সেখান থেকে পছন্দের সূত্র ধরে বাকি তিনবার অযাচিত ঘুরতে আসা। কোনো লাভ নেই, অহেতুক সামান্য কিছু টাকা অপচয় ছাড়া আর কিছু নয়।
টাকা অপচয়ের কথা শুনে চমকে গেলেন বুঝি? সমুদ্রসৈকতে গেলে টাকা অপচয় হতো না, কারণ, সেখানে গেলে ছোট ছোট পোশাক দেখা যেত। ছোট পোশাকের চর্চা নিঃসন্দেহে বিপজ্জনক। নার্সারিতে যাঁরা এসেছিলেন, তাঁদের সবাইকে পরিপূর্ণ অবস্থায় দেখলাম। দরজায় দুজন নিরাপত্তাপ্রহরী দাঁড়িয়ে আছেন। ঢুকে দেখি অনেক গাড়ি পার্কিং করা আছে। অনেকে এসেছেন কিছু কিনতে অথবা পরিদর্শনে।

default-image

একটি রুমের মধ্যে প্রবেশ করলাম। গাছ, বীজ, কীটনাশক, মাটি, টব বা অন্য কিছু কিনলে কাস্টমার সার্ভিসে এসে টাকা পে করতে হয়। রুমটি বেশ পরিপাটি করে সাজানো। টবে করা বিভিন্ন বাহারি গাছ, হাজারো প্রকার বীজ ও কীটনাশক পাওয়া যাচ্ছে। আর এগুলো এত সুন্দর করে সাজানো যে দেখলে চোখ জুড়িয়ে যায়।
এই রুম দিয়েই যেতে হয় মূল নার্সারিতে। গাছকে যাঁরা ভালোবাসেন, তাঁরা যদি একবার এই নার্সারি দেখেন, তাহ‌লে আমি নির্দ্বিধায় বলতে পারি, তাঁরা বারবার আসবেন এখানে।
বাগানে ইউনিফর্ম পরে কাজ করছেন পুরুষ ও নারী। সবুজে সবুজে ভরপুর। চোখ পরিষ্কার করার মতো সবুজ। নাম জানা–অজানা, চেনা–অচেনা কত গাছ।

বিজ্ঞাপন
default-image

মোপানে ট্রি, নাড়া প্লান্ট, ন্যাচারাল মেহগনি, রাবার ইউফোরবিয়া, কমোন স্টার চিজনাট, কর্ক বুশ, জাকালব্রি, নব টার্ন, বাওবাব, ব্লাক মানকি অরেঞ্জ, বাফেলো থর্ন, বুশ উইলো, সসেজ ট্রি, সিকল বুশ, সিলভার ক্লাস্টার লিফ, তামবোতি, আমব্রেলা থর্ন, উইপিং বয়ার বিন, উইপিং ওয়াটেলসহ বহুজাতিক গাছ দেখা যায়।
এ ছাড়া মরিচ, বেগুন, আপেল, আম, নারিকেল, গাছের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের ফুল গাছ দেখা মেলে। যদি কারও নার্সারি দেখার শখ জাগে, তাহলে স্টার্ক আয়রিস গার্ডেন সেন্টারে গেলে নিশ্চিত ভালো লাগবে।
সব ধরনের গাছের চারা, বীজ, কীটনাশক, সুন্দর সুন্দর টব, উর্বর মাটি, নার্সারি–সংক্রান্ত যন্ত্রপাতি কিনতে পাওয়া যায়। গাছের রোগব্যাধি, পরিচর্যা, রোপণ পদ্ধতি ইত্যাদির ওপর বাস্তব অভিজ্ঞতা গ্রহণ করা যায়। এই নার্সারির প্রতি আমার নিরেট ভালোবাসা রইল।


*rahman.mahfuzar7@gmail.com

মন্তব্য পড়ুন 0