বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এ সংকটকালে তাঁদের বিনা ফিতে পুনরায় পাসপোর্ট প্রদানসহ অন্য সব সহযোগিতা প্রদানের জন্য রাষ্ট্রদূতকে অনুরোধ জানান। আগুনের ভয়াবহ তাণ্ডবে পোড়া গ্যাস সিলিন্ডার, কাপড়চোপড়, খাদ্যদ্রব্য ও অন্যান্য ধ্বংসাবশেষ দেখে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের প্রতি দূতাবাস টিম সমবেদনা জানায়। এ সময় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীদের দ্রুত পাসপোর্ট প্রাপ্তিসহ আবাসস্থল, খাবার সরবরাহ এবং আইনগত সহযোগিতার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। দূতাবাসের আহ্বানে এথেন্সসহ গ্রিসের বিভিন্ন স্থানে বসবাসরত প্রবাসী নেতৃবৃন্দ ইতিমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীদের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন। পরিদর্শনকালে রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) বিশ্বজিৎ কুমার পাল।

default-image

দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বিকেলে রাষ্ট্রদূত আসুদ আহ্‌মেদ স্থানীয় ভারদা অঞ্চলের মেয়র মি. লেজাস ইয়ানিসের সঙ্গে দুর্ঘটনা ও এর থেকে স্থায়ীভাবে উত্তরণের উপায় নিয়ে বৈঠক করেন। রাষ্ট্রদূত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য অস্থায়ী আবাসস্থলের পরিবর্তে পাকা ও স্বাস্থ্যসম্মত বাসস্থানের ব্যবস্থা করার জন্য মেয়রকে অনুরোধ জানান। মেয়র বাংলাদেশি প্রবাসীদের জন্য দ্রুততম সময়ের মধ্যে নতুন অস্থায়ী বাসস্থান নির্মাণসহ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের বিষয়ে রাষ্ট্রদূতকে আশ্বাস দেন। তাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত কর্মীসহ স্থানীয় কৃষি খাতে নিয়োজিত কর্মীদের জন্য মানোলাদা ও এর নিকটবর্তী গ্রামগুলোয় স্থায়ী আবাসস্থল তৈরির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আলোচনা করেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের সব প্রয়োজনে মেয়র আন্তরিকভাবে পাশে থাকবেন বলেও রাষ্ট্রদূতকে আশ্বস্ত করেন। রাষ্ট্রদূত মেয়রকে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশিদের অতি সত্বর নতুন পাসপোর্ট প্রাপ্তির জন্য পুলিশ রিপোর্টসহ অন্যান্য সহযোগিতা প্রদানের অনুরোধ করেন। বিজ্ঞপ্তি

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন