default-image

জাপানের রাজধানী টোকিওতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্‌যাপিত হয়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে টোকিওতে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়৷

default-image


প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করে বিভিন্ন কর্মসূ​চির মধ্য দিয়ে দূর-দূরান্ত থেকে আগত প্রবাসীদের উপস্থিততে প্রথমে জাপানে নিয়োজিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন এবং পরে সব রাজনৈতিক দল, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ পেশাজীবীরা শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন৷ বিস্ময়কর হলেও সত্য এবার কিছু জাপাপিও উপস্থিত ছিলেন৷ এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশি বিভিন্ন পত্রপত্রিকার জাপানপ্রবাসী সাংবাদিক ও টিভি রিপোর্টাররা৷
মায়ের ভাষার দাবিতে বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমান্বিত এক দিন। যেদিন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারের বুকের রক্তে ভেসেছিল ঢাকার রাজপথ। বাঙালির রক্তস্নাত ভাষা আন্দোলনের স্বীকৃতি দিয়ে জাতিসংঘের সহযোগী সংস্থা ইউনেসকো ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে । এর পর থেকেই যথাযোগ্য মর্যাদায় সারা বিশ্বে একযোগে পালিত হয়ে আসছে এই দিনটি ।

বিজ্ঞাপন
দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন