বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গত ২০ অক্টোবর ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট-সংক্রান্ত প্রক্রিয়াগুলো সহজতর ও নিরাপদ করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সিউলে বাংলাদেশের চতুর্থ মিশন হিসেবে ‘ই-পাসপোর্ট’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

সেবা গ্রহণকারী প্রবাসীদের মধ্যে শিক্ষার্থী, গবেষক, ইপিএস কর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার বাংলাদেশি প্রবাসীরা ছিলেন। সবাই বাংলাদেশ দূতাবাসের এ ধরনের প্রবাসীবান্ধব কার্যক্রমকে স্বাগত জানিয়েছেন। বিশেষত কনস্যুলার সেবা নিতে সিউলে ভ্রমণ করা সময়সাপেক্ষ বিষয়, সঙ্গে প্রবাসের এ ব্যস্ত সময়ে অফিস দিনগুলোতে ফ্রি টাইম ম্যানেজ করাও অত্যন্ত কঠিন। তাই সাপ্তাহিক ছুটির দিনে, সিউল থেকে অনেক দূরবর্তী শহর গিমহেতে এমন সেবা আয়োজনে দূতাবাসের এমন উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।

*লেখক: বিকাশ রায়, গবেষক, দক্ষিণ কোরিয়া

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন