বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কোভিড-১৯ বিশ্ব মহামারির এ সময়ে বাংলাদেশের অর্থনীতি সচল রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বের কথা বলার সময় ভূমিমন্ত্রী বাংলাদেশি উদ্যোক্তাদের উদ্যমী এবং যোদ্ধা হিসেবেও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘এ সময় আমাদের জীবন ও জীবিকার মধ্যে সমন্বয় করতে হয়েছিল।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান (বিশেষ অতিথি হিসেবে), ম্যানচেস্টারের মেয়র অ্যান্ডি বার্নহ্যাম এবং পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

default-image

ভূমিমন্ত্রী উপস্থিত বিদেশি বিনিয়োগকারী ও প্রবাসী বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের আরও জানান, আইএমএফের উপাত্ত অনুযায়ী করোনা মহামারিকালে বিশ্বের শীর্ষ পাঁচটি সহনশীল অর্থনীতির দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাজ্যের জনগণের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অন্তর্ভুক্তিমূলক উল্লেখ করে সালমান এফ রহমান বলেন, প্রত্যেক নাগরিক যাতে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সুফল পায়, সেদিকে প্রধানমন্ত্রী সব সময় লক্ষ রাখেন।

বাংলাদেশের পুঁজিবাজার উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশি ও বিদেশি, বিশেষত যুক্তরাজ্যের বিনিয়োগকারীদের কাছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ–সম্ভাবনা উপস্থাপনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এই রোড শো আয়োজন করে।

বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের মূলধন বাজার এবং বাণিজ্যে বিনিয়োগের সুযোগ প্রদর্শন এবং বিদেশি ও অনাবাসী বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য আকৃষ্ট করার জন্য বিএসইসি এ রোড শো সিরিজ আয়োজন করছে। এ বছরের শুরুতে দুবাই ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪টি প্রধান শহর, সুইজারল্যান্ডের ২টি শহরে সফলভাবে রোড শো সমাপ্তির পর বিএসইসি এখন যুক্তরাজ্যের লন্ডন এবং ম্যানচেস্টারে রোড শো পরিচালনা করল। ৪ নভেম্বর লন্ডনে অনুষ্ঠিত রোড শো উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিজ্ঞপ্তি

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন