default-image

পর্যটকদের আকর্ষণ বাড়াতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ‘প্রমিজ ব্রিজ’। ব্রিজটি ঘিরে রয়েছে চোখজুড়ানো প্রাকৃতিক অপরূপ দৃশ্য। যে কেউ একবার গেলে তাঁর আরেকবার যেতে মন চাইবে সেখানে। ভ্রমণ করতে এসে পর্যটকেরা স্মৃতির নিদর্শন হিসেবে এ ব্রিজের গায়ে লাগিয়ে যান তালা।

সরেজমিনে জানা যায়, প্যারিসের ‘পঁত দো আর্টস’ সেতুর আদলে ২০১৮ সালে দুবাইয়ের আল খাওয়ানিজ এলাকায় সেতুটি নির্মাণ করা হয়। উন্মুক্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ভ্রমণে আসা প্রেমিক যুগলদের পছন্দের জায়গা এটি।

ভালোবাসার গভীরতা বাড়াতে বা প্রতিশ্রুতির শক্তি বিবেচনা করতে তাঁদের অনেকে এই সেতুর গায়ে লাগিয়ে যান নিজেদের স্মৃতিচিহ্ন ‘ভালোবাসার তালা’। ভ্রমণে আসা পর্যটকেরা বিভিন্ন রকমের তালার ওপর নিজেদের নাম বা ভালোবাসার মানুষের নাম লিখে সেগুলো ব্রিজের গায়ে বেঁধে রেখে যান। বর্তমানে কয়েক হাজার তালা ঝুলছে এই ব্রিজের গায়ে।

বিজ্ঞাপন

মূলত দুবাই ইয়ার্ডের কেন্দ্রবিন্দুতে ব্রিজটির অবস্থান। ৩৫ হাজার বর্গফুট জায়গায় বিস্তৃত ইয়ার্ডের মধ্যভাগে কৃত্রিম হ্রদের ওপর ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ হাজারো তালার ভার বইছে ব্রিজটি। পর্যটকদের কাছে এটি ইয়ার্ড দুবাই বা লাস্ট এক্সিট ডি ৮৯ নামেও পরিচিত।

কৃত্রিম হ্রদের মধ্যে দাঁড়িয়ে রয়েছে প্রতিশ্রুতি রক্ষক নামে পরিচিত এই ব্রিজ। নানা রঙের তালার কোনোটিতে ছেলে ও মেয়ের নাম, কোনোটিতে নামের আদ্যক্ষর, কোনোটিতে লাভ সাইন, কোনোটিতে কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের নাম লেখা রয়েছে।

ব্রিজটি ঘিরে এর চারপাশে রয়েছে চোখজুড়ানো প্রাকৃতিক অপরূপ দৃশ্য। যে কেউ একবার এলে তাঁর আরেকবার আসতে মন চাইবে এখানে। তবে করোনা মহামারির কারণে এই সেতুতে পর্যটকদের তেমন আনাগোনা নেই। দর্শনার্থীদের হাতের ছোঁয়া না পাওয়ায় মরিচা ধরছে সেতুর গায়ে থাকা ‘ভালোবাসার তালায়’।

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন