default-image

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ–পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের জন্য বাণিজ্যসুবিধা বহাল রাখতে সুইজারল্যান্ড সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. মোস্তাফিজুর রহমান। রাষ্ট্রদূত গত মঙ্গলবার সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট গাই পারমেলিনের কাছে পরিচয়পত্র প্রদানকালে এ আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের ধারাবাহিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের বিষয়ে সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্টকে অবহিত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ খুব শিগগির স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ করবে বলে তিনি প্রেসিডেন্ট পারমেলিনকে জানান। এ ক্ষেত্রে তিনি স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণশীল দেশগুলোর জন্য উত্তরণ–পরবর্তী সময়ে একটি নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য বাণিজ্যসুবিধা বহাল রাখার লক্ষ্যে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় চলমান আলোচনায় সুইজারল্যান্ড সরকারের সমর্থন কামনা করেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশকে বিনিয়োগকারীদের জন্য একটি লাভজনক বাজার বলে উল্লেখ করে সুইস বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার আহ্বান জানান। এ ছাড়া তিনি জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রয়াসে সুইজারল্যান্ডের সহায়তা কামনা করেন। তিনি কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে আর্থসামাজিক সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের বিষয়েও তিনি সুইস প্রেসিডেন্টকে অবহিত করেন।

বিজ্ঞাপন

সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এ সময় তিনি সুইস বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী বলে রাষ্ট্রদূতকে জানান। প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও মানবিক সহায়তা প্রদান করায় বাংলাদেশ সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত মো. মোস্তাফিজুর রহমান রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সুইজারল্যান্ডের অব্যাহত সমর্থনে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তবে তিনি জাতিসংঘ, আসিয়ান, প্রতিবেশী রাষ্ট্র ও মিয়ানমারে বিনিয়োগকারী দেশগুলো মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি করে এ সমস্যার টেকসই সমাধানে আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সুইস প্রেসিডেন্ট নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে বাংলাদেশের সরকার ও জনগণকে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে অভিনন্দন জানান। বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য করুন