default-image

পৃথিবীর সেরা ১০টি সবুজ শহরের তালিকায় প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা। তার পরই অবস্থান করছে জার্মানির মিউনিক শহর।

কানাডিয়ান-আমেরিকান সংস্থা রেসোন্যান্স এই তালিকা প্রকাশ করে। এই সংস্থা পৃথিবীর ১০০টি শহরের ওপর বিভিন্ন বিষয় পর্যালোচনা করে পৃথিবীর সেরা সবুজ শহর নির্বাচন করে।

মূলত শহরের মধ্যে সবুজ বনায়নের পরিধি, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, বাতাসে দূষণের পরিমাণ, গণপরিবহন ব্যবস্থা, পথচারীবান্ধব রাস্তা ইত্যাদির ওপর ভিত্তি করে সবুজ শহরের তালিকা ঘোষণা করা হয়। এই বছর প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা। দ্বিতীয় স্থানে আছে জার্মানির মিউনিখ, তৃতীয় স্থানে রয়েছে জার্মানির নার্লিন। ভিয়েনার গণপরিবহন ইউরোপের জন্য একটি মানদণ্ড হিসেবে পরিচিত এবং শহরটির প্রায় অর্ধেক জনসংখ্যা বার্ষিক গণপরিবহন টিকিট ব্যবহার করে থাকে বলে জানায় রেসোন্যান্স।

ভিয়েনার মেয়র মাইকেল লুডভিক জানান, ভিয়েনার শহরের পার্ক এবং সবুজ বনায়ন ভিয়েনার সবার জন্য উন্মুক্ত, যা ভিয়েনার জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নত করতে সাহায্য করে। জলবায়ু পরিবর্তনের এই সময় ভিয়েনার উন্মুক্ত পার্ক এবং সবুজ বনায়ন ভিয়েনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ। গত কয়েক বছর পৃথিবীর বাসযোগ্য শহরের তালিকায় অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা শীর্ষ স্থান দখল করে আছে। এর মধ্যে ভিয়েনা জায়গা করে নিল পৃথিবীর সেরা সবুজ শহরের তালিকায়।

 এই অর্জনে ভিয়েনায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরাও অনেক আনন্দিত এবং উচ্ছসিত। করোনার সংকট কাটিয়ে ওঠার পর ভিয়েনার জনগণের জন্য একটি বিশেষ প্রাপ্তি বলে জানিয়েছেন অনেকেই।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0