default-image

বাংলাদেশ হাইকমিশন পোর্ট লুইস মরিশাসে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন করা হয়েছে। ওই দিন দিবসের শুরুতে হাইকমিশনার মিজ রেজিনা আহমেদ সবার উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এর মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের কার্যক্রম শুরু হয় দূতাবাসে। এ ছাড়া ৭ মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা এবং বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হয়। আলোচনা সভার শুরুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়।

মিজ রেজিনা আহমেদ তাঁর ভাষণে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সব শহীদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণ ১৯৭১ সালে সবাইকে যেমন উজ্জীবিত করেছিল, তেমনি আজও দেশে–বিদেশের সব বাঙালিকে অনুপ্রাণিত করে যাচ্ছে। নির্দ্বিধায় বলা যায়, এই ভাষণ কালজয়ী এবং চিরভাস্বর। তিনি আরও বলেন, করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের সফলতা সর্বজনস্বীকৃত। বিজ্ঞপ্তি

বিজ্ঞাপন
দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন