বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাষ্ট্রদূত স্কুল ও কলেজের কার্যকরী পরিষদ, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের সঙ্গে পৃথক পৃথক বৈঠকে মতবিনিময় করেন। এ ছাড়াও তিনি স্কুলের বিভিন্ন শ্রেণিকক্ষ পরিদর্শন করে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন।

লিবিয়ার প্রথম এবং এখন পর্যন্ত টিকে থাকা একমাত্র বাংলা স্কুল ‘বাংলাদেশ কমিউনিটি স্কুল ও কলেজ’—যার যাত্রা শুরু হয় ১৯৮০ সালে। বাংলাদেশ দূতাবাসের সহায়তায় ও একটি কার্যকরী পরিষদের পরিচালনায় ৪১ বছর ধরে বিভিন্ন প্রতিকূলতা কাটিয়ে আরব বসন্তের ছোঁয়া গৃহযুদ্ধ কিংবা উত্তাল রাজনৈতিক পরিস্থিতি উপেক্ষা করে আজও সগর্বে লিবিয়ার মাটিতে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে এ বিদ্যালয়টি।

default-image
দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন