বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিঙ্গাপুরপ্রবাসীদের জন্য এটিই সর্ববৃহৎ কোনো রক্তদান কর্মসূচি ছিল। ২৪ এশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা নাজমুল খান বলেন, ‘আমাদের দৈনন্দিন ব্যস্ত জীবনের পাশাপাশি, আমাদের কিছু সামাজিক-মানবিক দায়বদ্ধতাও রয়েছে, সেই দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই আমাদের এ আয়োজন। রক্ত দিয়ে জীবন বাঁচানোর মতো মহৎ কাজ আর হয় না।’

default-image

জীবনে প্রথমবারের মতো রক্তদান করতে এসে নিজেদের আনন্দ ও উদ্দীপনার কথাও প্রকাশ করেন কয়েকজন। আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে রক্তদাতা মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমাদের প্রবাসী ভাইদের মধ্যে অনেকেই আছেন, যাঁরা দেশে নিয়মিত রক্তদান করতেন, কিন্তু সিঙ্গাপুর কখনো রক্ত দেওয়ার সুযোগ পাননি। ২৪ এশিয়াকে ধন্যবাদ আমাদের এ সুযোগটি নতুনভাবে প্রদান করার জন্য।’

এ কর্মসূচির একজন স্বেচ্ছাসেবক মনির হোসেন বলেন, ‘আমাদের প্রবাসী ভাইয়ের মধ্যে রক্তদানের আগ্রহ ছিল চোখে পড়ার মতো, আমরা চাই প্রতিবছর রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করতে, এতে করে বিদেশেও আমাদের বাংলাদেশি প্রবাসী ভাইয়েরা রক্তদানের মতো মহৎ কাজের সঙ্গে নিজেদের যুক্ত রাখতে পারবেন।’

default-image

রক্তদান শেষে সব সফল রক্তদাতার মধ্যে সিঙ্গাপুর রেড ক্রসের পক্ষ থেকে রক্তদান সনদ দেওয়া হয়। এ ছাড়া ২৪ এশিয়ার পক্ষ থেকে রক্তদাতাদের রক্তদানে অংশগ্রহণ ও উৎসাহিত করার জন্য বিভিন্ন উপহারসামগ্রী বিতরণ করা হয়। কর্মসূচিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেন ২৪ এশিয়ার স্বেচ্ছাসেবক রাকিব হাসান, আনোয়ার হোসেন, রিয়াজ মোল্লা, রিয়াদ শেখ, রাতুল মাহমুদ, সাইফুল ইসলাম, আবুবক্কর সিদ্দিক প্রমুখ। দিনব্যাপী এই কর্মসূচির সহযোগিতা করে সিঙ্গাপুর রেড ক্রস ও সামাজিক সংগঠন ওয়েলকাম ইন মাই ব্যাকইয়ার্ড (উইম্বি)।

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন