default-image

বাংলাদেশের ধর্ষণের শিকার ব্যক্তিদের বিচার দাবির ঢেউ অস্ট্রেলিয়াতেও লেগেছে। দেশটির অন্যতম প্রধান শহর সিডনির টাউন হলের ব্যস্ত রাস্তায় অনেক পথচারী হঠাৎ থেমেছেন। কারণ ভিনদেশি এক মানুষ দিপেশ সেদাই। বাংলাদেশের পার্শ্ববর্তী দেশ নেপালের নাগরিক, অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করেন। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সকল ধর্ষকদের ফাঁসি দেওয়ার দাবিতে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়েছেন সিডনির প্রাণকেন্দ্র টাউন হলের সামনে। দুপুরের তপ্ত রোদে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে মাথার ওপর প্ল্যাকার্ড ধরা তরুণ দিপেশ সেদাই। সেখানে ইংরেজিতে লেখা, ‘ধর্ষকের জন্য কোনো করুণা নেই, তাঁদের ফাঁসি দেওয়া হোক।’ ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি ও নির্যাতন রোধে ধর্ষকের শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের দাবি তুলে ধরেন দিপেশ নামের এ তরুণ।

কেন এ প্রতিবাদ-এমন প্রশ্নের জবাবে দিপেশ বলেন, সবখানে ধর্ষণের যে এক মহাযজ্ঞ শুরু হয়েছে, আমি এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে দাঁড়িয়েছি। ধর্ষককে সঠিক শাস্তি প্রদান করা হচ্ছে না বলেই এ অপরাধ আরও বেড়ে চলছে। বাংলাদেশের মতো নেপালেও একই অবস্থা। দেশে আমার বোনেরা আছে আর আমি সব সময় তাঁদের নিয়ে চিন্তায় থাকি। তাঁদের সঙ্গেও কিছু হতে পারে। ৬ মাসের শিশু, ১৩ বছরের কিশোরী এমনকি বয়স্ক মহিলা কেউই ধর্ষকের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেন না। আর এর প্রতিকারে আমি চাই ধর্ষকদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি কার্যকর করা হোক।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0