সি আর দত্ত বীর উত্তমের স্মরণে শোকসভা

বিজ্ঞাপন
default-image

মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার, বিডিআরের (বর্তমানে বিজিবি) প্রতিষ্ঠাকালীন মহাপরিচালক, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) চিত্তরঞ্জন দত্তের (সি আর দত্ত) মৃত্যুতে ১৩ সেপ্টেম্বর মন্ট্রিয়লে শোকসভার আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ কানাডা শাখার উদ্যোগে স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁয় আয়োজিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের অন্যতম সভাপতি প্রদীপ সরকার দোলন।

সভায় সি আর দত্তকে একজন নিবেদিতপ্রাণ দেশপ্রেমিক হিসেবে বর্ণনা করে বলা হয়, তাঁর মৃত্যু দেশের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। সি আর দত্তের নামে একটি উল্লেখযোগ্য জাতীয় স্থাপনার নামকরণের দাবি জানান বক্তারা। তাঁরা বলেন, সি আর দত্ত মুক্তিযুদ্ধেই শুধু অসামান্য অবদান রাখেননি, তিনি যুদ্ধ-পরবর্তী দেশ গঠনেও সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন। দেশে ৭২-এর সংবিধান পুনরায় ফিরিয়ে এনে মুক্তিযুদ্ধের মূল অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে তিনি আজীবন লড়াই করে গেছেন। কিন্তু বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রে পুনরায় ফিরে যাওয়ার প্রত্যাশা অপূর্ণ রেখেই তিনি চলে গেলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সভা পরিচালনা করেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সরোজ কুমার দাশ। বক্তব্য দেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ কানাডা শাখার অন্যতম সভাপতি সুনীল গোমেজ, অধ্যাপক বিদ্যুৎ ভৌমিক,আনন্দ ভিক্ষু, অনন্ত সিনহা নিশি, উৎপল দত্ত, পার্থ সারথী দে, পুলক তরফদার, বরুণ বণিক, কৃপেশ পাল, সঞ্জীব দাশ উত্তম, রতন মণি ধর প্রমুখ।

default-image

কোভিড- ১৯-এর কারণে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠিত শোকসভার শুরুতে সেক্টর কমান্ডার সি আর দত্ত, সেক্টর কমান্ডার আবু ওসমান চৌধুরী ও বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীসহ সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও অন্যান্য অসুস্থতায় মৃত্যুবরণকারী সবার প্রতি শ্রদ্ধা ও তাঁদের আত্মার শান্তি কামনায় দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন