সুইজারল্যান্ড ইইউর সদস্য নয়। দেশটি রাশিয়ান পণ্য বাণিজ্যের একটি মূল কেন্দ্র।
স্টেট সেক্রেটারিয়েট ফর ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স মনে করে, সুইজারল্যান্ডেরও প্রতিটি ক্ষেত্রে চূড়ান্তভাবে পৃথকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত যে একটি লেনদেন ‘কঠোরভাবে প্রয়োজনীয়’ কি না।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের প্রতিক্রিয়ায় ইইউ রাশিয়ান তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি, কারণ জার্মানির মতো কিছু দেশ রাশিয়ার তেলের ওপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল এবং বিকল্পগুলোকে অদলবদল করার মতো অবকাঠামো নেই। ট্রেডিং কোম্পানিগুলো অবশ্য রাশিয়ান এনার্জি গ্রুপ রোসনেফ্টের কাছ থেকে কেনাকাটা বন্ধ করে দিচ্ছে, কারণ তারা বিদ্যমান ইইউ নিষেধাজ্ঞার ভাষা মেনে চলতে চাইছে।

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন