default-image

সৌদি আরবে বসবাসরত বাংলাদেশিসহ সব অভিবাসীকে করোনাভাইরাসের ফ্রি চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে আন্তরিক ধন্যবাদ দিয়েছেন রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। সম্প্রতি সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী হানি জোখদারের সঙ্গে এক ভার্চ্যুয়াল সভায় রাষ্ট্রদূত এ ধন্যবাদ জানান।

রাষ্ট্রদূত সফল ও কার্যকরভাবে করোনাভাইরাস মোকাবিলার জন্য সৌদি সরকারের প্রশংসা করেন, যার ফলে সৌদি আরবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে। এ সময় সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী হানি জোখদার জানান, সৌদি সরকার করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে এবং সব ধরনের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী করোনাভাইরাসের চিকিৎসা প্রদানে দায়িত্ব পালনকালে সৌদি আরবে বাংলাদেশি চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীসহ যেসব বাংলাদেশি অভিবাসী মারা গেছেন, তাঁদের গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করেন। এ সময় সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী হানি জোখদার দায়িত্ব পালনকালে চিকিৎসকদের মৃত্যুকে সর্বোচ্চ ত্যাগ বলে অভিহিত করেন। রাষ্ট্রদূত এ সময় স্বাস্থ্য উপমন্ত্রীকে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সৌদি আরবকে ভ্রাতৃত্বের নিদর্শনস্বরূপ পাঠানো মাস্ক ও পিপিই গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ জানান।

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশিয়ান ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী কর্মী সৌদি আরবে নিয়োগের জন্য অনুরোধ জানান। এ ছাড়া বাংলাদেশের পোস্টগ্র্যাজুয়েশন মেডিকেল ডিগ্রির অনুমোদন ও মেডিকেলবিষয়ক জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা শেয়ার করাবিষয়ক প্রোগ্রামের বিষয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান। সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন। সভা শেষে রাষ্ট্রদূত দুই দেশের অর্থনৈতিক ভিশন বাস্তবায়নে সৌদি আরবের স্বাস্থ্য খাতসহ বিভিন্ন সেক্টরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

বৈঠকে দূতাবাসের উপমিশনপ্রধান এস এম আনিসুল হক ও কাউন্সেলর হুমায়ূন কবির উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য পড়ুন 0