default-image

আমরা সবাই এক তুমুল ভালোবাসাময় জীবন চাই! অসাধারণ সঙ্গী চাই, হাওয়ায় ভাসানো প্রেম চাই! ভালোবাসায় ভরা সংসার চাই—সেই সংসারে চাহিদার সীমা নেই। এন্ডোরফিনের হাওয়ায় ভাসতে ভাসতে, নুন, চিনি, তেলের সংসারের কথা ভুলে যাই! তেল চিটচিটে মুখ, জট বাঁধা চুল, চোখের নিচের কালি, ঘামের গন্ধ, নোংরা শার্ট, স্বামী, শ্বশুরবাড়ির মুখ ঝামটা, মাসকাবারি বিল বেতনের বাইরে গেল কি না, সংসারের হাজারো কূটকচালে দিনটা কাটবে কেমন, কাজের চাপে সংসার হবে, না শিক্ষা হবে, না বাচ্চাদের সময় দেওয়া যাবে, না ওই নিদেনপক্ষে ধর্মকর্মে মনোযোগ দেওয়ার সময় হবে? রান্না, না বাচ্চার পড়া, না নিজের পড়া, না পতিদেবতার, না কাজ, না শাশুড়ির মাথায় তেল দেওয়া?

আটপৌরে জীবন নিয়ে প্র্যাকটিক্যাল ভাবনা কেউ কি ভাবি?
যারা ভাবে...বাব্বা; তারা জিনিয়াস!
আর যারা ভেবে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারে, তারা আইনস্টাইনের চেয়েও বড় জিনিয়াস!

অবশ্য আইনস্টাইন ব্যাটার প্রতি আমার প্রচণ্ড ক্ষোভ আছে, বউয়ের কাজ নিজের বলে চালিয়ে দিয়ে নোবেল পেয়েছেন, তাঁকে কোনো স্বীকৃতিই দেননি, বরং খালাতো বোনের সঙ্গে প্রেম করে তাঁকে বিয়ে করেছেন। বউকে সবকিছু থেকে বঞ্চিত করেছেন। অমন জিনিয়াস মেয়েরই তেমন অবস্থা, আমরা তো কোন গোয়ালের গরু!
তার চেয়ে পিয়েরে কুরি ভীষণ ভালো লোক, বউয়ের অবদানের স্বীকৃতি না দিলে নোবেল নেবেন না বলে ঘোষণা দিয়ে যুগ্মভাবে নোবেল পেয়েছেন। তাঁদের মেয়ে, মেয়েজামাইও নোবেল পেয়েছেন।

তারপরও আমরা আকাশকুসুম স্বপ্ন দেখি ছেঁড়া কাঁথায় শুয়ে, তার মধ্যে আবার ফুটো টিনের চালে বৃষ্টিও পড়ে! বৃষ্টিতে সারা ঘর ভিজে যায়! সেই ভেজা কাঁথায় বসে ভাবি, প্রেমিক স্বামী বা বধূ ঝালমুড়ি মাখিয়ে এনে কি আদুরে গলায় গলা মিলিয়ে একসঙ্গে চাবাতে বলছে।

বিজ্ঞাপন
default-image

নয়তো গরম ধোঁয়া ওঠা মন মুচড়ে দেওয়া গন্ধে মাতানো ভুনা খিচুড়ির সঙ্গে, পদ্মার তাজা ইলিশের মচমচে ভাজি, সঙ্গে কয়েকটি মোটা চাক করে কাটা মুচমুচে বেগুনভাজা, ঝাল আচার আর পেঁয়াজের ভর্তা—ট্যাশ! কী ট্যাশ জীবনের চিন্তাভাবনার!
ভুলেই যাই, ছেঁড়া কাঁথায় যার শীত যায় না, তার ঘরে সুগন্ধি চাল থাকার সম্ভাবনা ক্ষীণ—আর পদ্মার তাজা ইলিশ! ভাই রে ভাই, ভিজতে ভিজতে নিউমোনিয়া বাঁধায়, ওষুধের অভাবে পটল তোলার কথা ভুলেই যাই। ভাবা তো তাই উচিত নয়?
মানুষ, মানুষের মন কী ভীষণ স্বপ্নবাজ!

হয়তো জামাই তার পঙ্গু, কাজ নেই। বউ নাহয় না–ই পেটাক...দুমুঠো ভাতের ব্যবস্থা করতে না পারলে তালাক আজকাল দুই দিনের ব্যাপার! ওই হায়ার স্টাডিজ? গোল্ড, ডায়মন্ড, দামি শাড়ি? কথায় কথায় ভালোবাসায় মাখামাখি? জড়াজড়ি? হাওয়া মে উড়তা যায়ে...স্বপ্ন, ভাই স্বপ্নের কথা বলছি! সঙ্গে আরও যা যায়, তা হচ্ছে ভালোবাসা, কে যে ওই গালভরা নাম দিয়েছে তার! বলা উচিত মনের কারসাজি!
আসলেই মন? মন তুই মরিস না কেন?
আমরা সবাই পিয়েরে কুরি চাই, পাই আইনস্টাইন!

*লেখক: শারমীন বানু আনাম, চিকিৎসক

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন