default-image

রমজান মাস প্রায় শেষ হয়ে এল। আর কয়েক দিনের মধ্যেই আকাশের কোল ঘেঁষে আহ্লাদী বাঁকা চাঁদ তার ফোকলা দাঁত বের করে ফিক করে হেসে উঠবে। সেই হাসির ঝলক সবার ঘরে নিয়ে আসবে ঈদের আনন্দ বার্তা। ঈদের খুশিতে মেতে উঠবে সমগ্র মুসলিম জাহান।

প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়ার প্রস্তুতি বেশ আগে থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে। ঘরমুখো মানুষেরা ঘরে ফেরার দিন গুনছেন। মনের গহিনে বেজে উঠছে সেই চিরচেনা সুর—স্বপ্ন যাবে বাড়ি আমার!
আমার এই ভিনদেশি পৃথিবীতে বসে আমিও দিন গুনছি একটি আনন্দ প্রহরের। আমিও কতকাল ধরে স্বপ্নে বিভোর শুধু একটিবার বাড়ি যাওয়ার জন্য। সেই ২০১৩ সালে শেষবার প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ উদ্‌যাপন। আর হয়ে ওঠেনি। দুদণ্ড বাবা-মাকে ছেড়ে থাকতে না পারা মেয়েটি কীভাবে যেন পার করে দিল চার চারটি বছর! সময়ের স্রোতোধারায় বয়ে যাওয়া চারটি বছর প্রতিটি পরতে পরতে প্রহর গুনেছে একটি মুক্তির আশায়। কবে বাড়ি যাব?
গেল একটি বছর আমার বাক্সবন্দী স্বপ্নগুলো কেবল হাতছানি দিয়ে ডেকেছে। এইবার বেলা মুক্তি। ঘরে ফেরার পালা। প্রতীক্ষা যে কত মধুর তা রন্ধ্রে রন্ধ্রে টের পেয়েছি ফেলে আসা বছরগুলোতে। কতকাল মায়ের কোলে মাথা রেখে ঘুমাই না, মায়ের হাতে পরম স্নেহ আর ভালোবাসায় মাখানো ভাত খাই না! বাবার আদর, ভাই-বোনের খুনসুটি, প্রিয় মানুষগুলোর অকৃত্রিম ভালোবাসা কত দিন যে পাই না। সব পুষিয়ে নেব আসছে ঈদে। আর সব ঘরমুখো মানুষের মতো আমিও ঘরে ফিরব। আবারও ফিরে পাব হারিয়ে যাওয়া ঈদ আনন্দ। আমার অতৃপ্ত আত্মা তৃপ্ত হবে ভালোবাসার বন্ধনে।
দীর্ঘ বিরতির পর স্বদেশে ফেরার প্রস্তুতি শুরু হয়েছিল গত বছর থেকেই। প্রিয় মুখগুলোর জন্য ছোট ছোট ভালোবাসার উপহার কিনে জমিয়ে রাখছিলাম একটু একটু করে। সবচেয়ে বড় আর চমকপ্রদ যে উপহারের জন্য আমার বাবা-মা অধীর আগ্রহে প্রতীক্ষা করছেন, তা হলো আমার কোলজুডে আসা ছোট্ট দুটি ছানা। তাদের স্পর্শহীন ভালোবাসা স্পর্শের সীমায় আনার সব রকম চেষ্টাই আমাদের ছিল।
কিন্তু কখনো কখনো প্রকৃতি আমাদের ওপর বড্ড বেশি অভিমান করে বসে। আর তার অভিমানের করুণ বর্ষাধারায় যত্নে রাখা স্বপ্নগুলো ধুয়ে-মুছে বিলীন হয়ে যায়। প্রকৃতি হয়তো চেয়েছিল প্রতীক্ষার ধৈর্যের পরীক্ষা নিতে আর সে কারণেই হয়তো এবারও হলো না বাড়ি ফেরা। দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হতে আরও হয়তো কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হবে...দূর প্রবাসে বসেই স্বপ্নে বাড়ি ফেরা হবে...বাস্তবতা যে এখনো ধরা দেয়নি।
আমরা যারা প্রবাস পৃথিবীর বাসিন্দা, আমরা আমাদের এমন অনেক স্বপ্নকেই দেশের প্রিয় মুখগুলোর জন্য, নিজেদের ব্যস্ততার জন্য অথবা একান্ত কিছু ব্যক্তিগত অপারগতার জন্য হাসিমুখে ত্যাগ করে ফেলি। হোক না কষ্ট, তবুও ভালো থাকুক ভালোবাসার মানুষগুলো। ভালো কাটুক ঈদ উৎসব। আমরা আমাদের বিবর্ণ সুখের অন্তরালে খুঁজে নেব প্রিয়জনদের অনাবিল আনন্দ। এবার হয়নিতো কী হয়েছে, আগামী ঈদে না হয় অপূর্ণ স্বপ্ন পূর্ণতা হয়ে ধরা দেবে। আর সে পর্যন্ত মন গেয়ে উঠবে...স্বপ্ন যাবে বাড়ি আমার...।
দূর পরবাস থেকে সবাইকে জানাই ঈদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা।
ঈদ মোবারক।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0