বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নবজাতকের ওজন

শিশুর জন্মকালীন ওজন আড়াই কেজির বেশি হলে স্বাভাবিক হিসেবে গণ্য করা যায়। তবে চার কেজির বেশি ওজন হলে সতর্ক হতে হবে। ওজন বেশি হওয়ার কারণ জরুরি ভিত্তিতে অনুসন্ধান করতে হবে।

স্থূলদেহী মায়ের সন্তান অস্বাভাবিক বড় হয়ে জন্মাতে পারে। আবার ডায়াবেটিক মায়ের সন্তানের ওজনও স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি হতে পারে। গর্ভকালের ওপর ভিত্তি করে নবজাতক সাধারণভাবে নির্দিষ্ট রকমের ওজন নিয়ে জন্মায়। কিন্তু কোনো কোনো সময় কম গর্ভকাল পাওয়া শিশুর জন্মকালীন ওজন অতিরিক্ত হতে পারে।

জন্মকালীন অতিরিক্ত ওজনের শিশুর আরও কিছু সমস্যা হতে পারে। জন্মের সময় আঘাত লাগতে পারে এদের। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো এরবস পালসি, কেফাল হেমাটোমা, সাবডুরালা রক্তপাতসহ মাথায় নানাবিধ আঘাত, মুখে ও শরীরের নানা অংশে কাটাছেঁড়া প্রভৃতি। স্বাভাবিক ওজনের নবজাতকের তুলনায় এসব শিশুর মধ্যে নানা ত্রুটি, যেমন জন্মগত হৃদ্‌রোগ বেশি হওয়ার ঝুঁকি থাকে। তা ছাড়া এসব শিশুর মানসিক বিকাশও ধীর হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

অধ্যাপক প্রণব কুমার চৌধুরী, সাবেক বিভাগীয় প্রধান, শিশুস্বাস্থ্য বিভাগ, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

স্বাস্থ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন