বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

করণীয়

  • ব্যথা বেশি হলে চিকিৎসকের পরামর্শে ব্যথানাশক গ্রহণ করতে হবে।

  • ডায়াবেটিস থাকলে তা নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। ওজন বেশি থাকলে কমাতে হবে।

  • ফিজিওথেরাপি ও ব্যায়াম খুবই কার্যকর চিকিৎসা। প্রয়োজনে ফিজিওথেরাপি নিতে হবে।

  • চিকিৎসক প্রয়োজন মনে করলে সুগার নিয়ন্ত্রণে এনে জয়েন্টে স্টেরয়েড ইনজেকশন দিতে পারেন।

  • সন্ধির নড়াচড়া একেবারে বন্ধ হয়ে গেলে অনেক সময় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জেনারেল অ্যানেসথেশিয়া দিয়ে নড়াচড়া করিয়ে থাকেন।

  • ফ্রোজেন শোল্ডারের চিকিৎসা দীর্ঘমেয়াদি। সারতে কয়েক মাস সময় লাগতে পারে। কাজেই ধৈর্য ধরে ব্যায়াম ও চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে।

অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম, বিভাগীয় প্রধান, অর্থোপেডিক বিভাগ, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল

স্বাস্থ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন