মডেল: আরিফিন শুভ
মডেল: আরিফিন শুভছবি: প্রথম আলো

ব্যায়াম আপনার শরীরকে ফিট রাখবে। কিন্তু ব্যায়াম যেন ঠিকঠাকভাবে করা যায়, সে জন্য মানতে হয় কিছু নিয়মও। টুকটাক এই বিষয়গুলোই সহায়তা করবে ব্যায়াম–পরবর্তী ফলাফল ভালোভাবে পাওয়ার জন্য।

বিজ্ঞাপন

টিপস

default-image

১. ঘুমানোর সময় জাদুর মতো বিষয়গুলো ঘটে যায়। এ সময় বারপি বা স্প্রিন্ট করার জন্য যে পরিমাণ শক্তি দরকার, সেটি পাওয়া যায়। পর্যাপ্ত ঘুমের কারণে ক্ষুধার হরমোনকেও ঠিকঠাক রাখে। যাঁরা নিয়মিত ব্যায়াম করতে চান, সঠিক সময়ের ৭ ঘণ্টা ঘুম অনেকটাই বাধ্যতামূলক। ব্যায়ামের পরও ঘুম দরকার। এ সময় মাংসপেশিগুলো নিজেদের পুনরুদ্ধার করে তোলে।

২. পানি পান করতে হবে প্রচুর। ব্যায়ামের সময় ঘাম বের হবেই। সেটা পূরণ করতেই পানি পান করতে হবে।

default-image

৩. ব্যায়ামের আগে পেট ঠেসে খেতে হবে, এমনটি নয়। তবে একদম খালি পেটেও ব্যায়াম শুরু করবেন না। একটি টোস্টের ওপর কাঠবাদামের মাখন লাগিয়ে খেয়ে নিলেও হবে।

৪. ব্যায়াম শুরুর আগে ওয়ার্মআপ করাটা বাধ্যতামূলক। হঠাৎ করে ব্যায়াম শুরু করলে রগে টান খাওয়া, ব্যথা পাওয়ার মতো ঘটনাগুলো ঘটবে না। ওয়ার্মআপ ব্যায়ামের আগে আপনার শরীরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেবে। গতির পরিধি বাড়াবে এবং আপনি যা করতে চলেছেন তার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করার সুযোগও দেবে।

বিজ্ঞাপন

৬. কুল ডাউন ব্যায়ামের পর শরীরকে পূর্ববর্তী জায়গায় নিয়ে যায়। প্রতিটি স্ট্রেচ ১৫ সেকেন্ড করে ধরে রাখলে ভালো।

default-image

৭. ব্যায়ামের পর অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকবেন না। অনেকক্ষণ ব্যায়াম করার পর শরীরে শর্করা ও আমিষের চাহিদা দেখা দিতে পারে। অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে শারীরিকভাবেও দুর্বল বোধ করবেন।

৮. ব্যায়ামের পর ঠান্ডা পানিতে গোসল করে নিন। সারা দিনের জন্য ঝরঝরে বোধ করবেন।

মন্তব্য পড়ুন 0