default-image

করোনা অতিমারিতে সারা বিশ্বে পাল্টে গেছে চেনা পরিবেশ। ঘরে থেকে বিচ্ছিন্ন থেকে মানুষ যেন মানসিকভাবে আরও বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাই বিশ্বব্যাপী বেড়ে গেছে মনোরোগীর সংখ্যা। কোভিডকালে দেশ–বিদেশের গবেষণা থেকেই বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে গেছে। হতাশা আর একাকিত্বে বিপর্যস্ত মানুষকে সেবা দিতে মনঃস্বাস্থ্য–বিষয়ক প্রতিষ্ঠান মনের বন্ধু আয়োজন করেছে বিনা মূল্যে ৪০ ঘণ্টার অনলাইন কোর্স।

ইউএনডিপির কোভিড-১৯ রেসপন্স (সাইকোসোশ্যাল সাপোর্ট) প্রকল্পের অধীনে তারা এই কোর্সের আয়োজন করেছে। মনের বন্ধুর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদা শিরোপা বলেন, দেশ–বিদেশের মনোবিদ ও মনোরোগ চিকিৎসকসহ ২০ জনের একটি বিশেষজ্ঞ দল এই কোর্সের ডিজাইন করেছে। বাংলা ভাষায় এমনভাবে প্রতিটি বিষয়ে বর্ণনা করা হয়েছে, যাতে সব ধরনের মানুষ সহজে বিষয়গুলো বুঝতে পারে। কোর্সটি সফলভাবে শেষ করতে পারলে যেকেউ নিজের ও পরিবারের মনঃস্থাস্থ্য বিষয়ে আরও সচেতন হবে। সুস্থভাবে জীবন যাপন করতে পারবে।

বিজ্ঞাপন

কী আছে কোর্সে

জীবনে ও কাজের ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে এবং মনকে সুস্থ রাখাতে সাহায্য করবে এই কোর্স। মানসিক চাপ, হতাশা, ঘুমের সমস্যা, সহনশীলতা, আবপ্রবণ বুদ্ধিমত্তার দক্ষতা, নিজের বিষয়ে ইতিবাচক থাকা, আত্মহত্যা প্রতিরোধ, প্যারেন্টিংসহ বিভিন্ন বিষয়ের মোট ৪৫টি মডিউল আছে কোর্স এখানে, যা নিজের ও পরিবারের যেকোনো অসহায় পরিস্থিতি সহজে সামাল দিতে সাহায্য করবে। কোর্সটি করে কেউ মনোবিদ হয়ে যাবেন না, তবে মনঃস্বাস্থ্য বিষয়ে নিজেকে ও পরিবারের কাছের মানুষদের উপকারে আসতে পারবেন।

যেভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেন
• মডিউল অনুশীলন বা কোর্স এনরোল করার আগে আপনার নাম ও ই-মেইল ঠিকানা দিয়ে কোর্সে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর আপনি লগইন করতে পারবেন।
• ছয়টি বিভাগের মডিউলগুলো শেষ হওয়ার পর আপনি কী শিখলেন ও কীভাবে আপনার আশপাশের মানুষকে এই বিষয়ে সচেতন করতে পারবেন, সে জন্য অনুশীলনী দেওয়া আছে। একেকটা বিভাগ ও অনুশীলনী শেষ করেই পরের ধাপে যেতে পারবেন।
• ৪৫টি মডিউল শেষ করার পরে চূড়ান্ত অনুশীলন আসবে। এটা সফলভাবে শেষ হলে (৬০ ভাগ নম্বর পেলে) আপনি একটি সার্টিফিকেট পাবেন, যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও শেয়ার করতে পারবেন সবার সঙ্গে। ব্যবহার করতে পারবেন কর্মক্ষেত্রেও।

কোর্সের লিংক: www.monerbondhu.org/courses/course-on-mental-health/

মন্তব্য পড়ুন 0