বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তীব্রতা অনুসারে মস্তিষ্কে আঘাত সামান্য, মাঝারি ও মারাত্মক হতে পারে। আঘাতে মস্তিষ্কের সম্পূর্ণ অংশ যদি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাহলে তাকে ‘ডিফিউজ এক্সোনাল ইনজুরি’ বলে। মাথায় আঘাত পেলে অবশ্যই যত দ্রুত সম্ভব রোগীকে হাসপাতালে নিতে হবে। এমনকি বাইরে থেকে রোগীকে দেখতে স্বাভাবিক মনে হলেও তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে নিন। রোগীর আঘাতের সম্পূর্ণ ইতিহাস জেনে, শারীরিক পরীক্ষা করে চিকিৎসক আঘাত ও ক্ষতির মাত্রা নির্ণয়ের জন্য মস্তিষ্কের সিটি স্ক্যান করতে পারেন। ঘাড়ের আঘাত দেখার জন্য সারভাইক্যাল স্পাইনের এক্স–রে করতে হবে। মাথায় আঘাতের পর রোগীর অচেতন হয়ে পড়া, বমি হওয়া, নাক দিয়ে রক্ত বা তরল আসা, কান দিয়ে রক্ত বা তরল আসা ইত্যাদি গুরুতর আঘাতের লক্ষণ। নিকটস্থ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর নিউরোসার্জারি বিভাগে সুচিকিৎসার জন্য পাঠাতে হবে। মস্তিষ্কের অভ্যন্তরে বেশি রক্তক্ষরণ হলে অস্ত্রোপচার করতে হবে।

অধ্যাপক হারাধন দেবনাথ, নিউরোসার্জারি বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়

স্বাস্থ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন