বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা

ত্বরিত চিকিৎসা ও বিভিন্ন ওষুধ রোগীর জীবন বাঁচানোসহ স্থিতিশীল করতে পারলেও তাঁর শরীরের স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা ফিরিয়ে আনতে দীর্ঘদিন লেগে যায়। এই ক্ষেত্রেই শুরু ফিজিওথেরাপি। একজন ফিজিওথেরাপিস্টের মূল লক্ষ্যই হলো স্ট্রোক-পরবর্তী সমস্যাগুলো নির্ণয় করে শরীরের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা ফিরিয়ে নিয়ে আসা। এর জন্য দরকার সঠিক ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা। তাই কেউ স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে অতি দ্রুত কাছাকাছি হাসপাতালে নিয়ে যাবেন এবং রোগী কিছুটা স্ট্যাবল হলে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা শুরু করবেন। মনে রাখবেন স্ট্রোকের পর যত তাড়াতাড়ি ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা শুরু করা যাবে, রোগীর কার্যক্ষমতা ফিরে আসার সম্ভাবনা তত বেশি থাকে।

ভুল ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা রোগীর জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। বর্তমানে অত্যাধুনিক ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার মাধ্যমে স্ট্রোকে আক্রান্ত রোগীকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

যথাযথ ফিজিওথেরাপির মাধ্যমে পক্ষাঘাতগ্রস্ত অঙ্গের নড়াচড়া, মুখ বেঁকে যাওয়া ও গিলতে পারার সমস্যা দূর করা হয়। ফিজিওথেরাপি না করা হলে ক্ষতিগ্রস্ত অঙ্গ শক্ত হয়ে যেতে পারে। স্পিচ থেরাপির মাধ্যমে কথা বলার ক্ষমতা ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

এম ইয়াছিন আলী, ফিজিওথেরাপিস্ট, চিফ কনসালট্যান্ট, ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল

সুস্থতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন