বিজ্ঞাপন

পরিবারের মানসিক স্বাস্থ্যে গুরুত্ব দিন

default-image

দূরে থাকলে পরিবারের সবার সঙ্গে কথা বলুন নিয়মিত। কাছাকাছি থাকলে অন্তত এক বেলা একসঙ্গে খাবার খান। সবার সঙ্গে বসে আড্ডা দিন, ইনডোর গেমও খেলতে পারেন, দেখতে পারেন সিনেমা। পরিবারে যদি বয়স্ক কেউ থাকেন, তাঁদের প্রতি বিশেষ নজর দিন। তাঁদের সঙ্গে সময় কাটান। কারণ করোনা পরিস্থিতি তাঁদের জন্য খুবই অসহনীয় এবং ভয়ের। পরিবারের ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে খেলাধুলা করুন। তাদের গল্প শোনান, কেননা, এখন শিশুরা গ্যাজেটের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। খেয়াল রাখতে হবে নিজের দিকেও। বই পড়ুন, গান শুনুন, সিনেমা দেখুন। অবসর সময়টুকু উপভোগ করুন।

বিধিনিষেধ শিথিল হলেও সতর্ক থাকুন

বিধিনিষেধ চলতেই থাকবে, বিষয়টা এমন নয়। ধাপে ধাপে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চলেছে সবাই। দোকান, শপিংমল, গণপরিবহন খুলে গেলেই খুশিতে আত্মহারা না হয়ে সতর্ক হোন। এমন অবস্থায় অহেতুক পরিবার নিয়ে বাইরে চলাফেরা না করাই ভালো। কারণ আপাতদৃষ্টিতে সংক্রমণ কম মনে হলেও একটু অসতর্ক হলে তা আবারও বাড়তে পারে। বিশেষ করে শিশু এবং বয়স্ক লোকজনের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। আবার মানসিকভাবেও প্রস্তুতি নিতে হবে। কেননা একটু একটু করে যে বন্দী জীবনের সঙ্গে আমরা অভ্যস্ত হয়ে উঠতে বাধ্য হয়েছিলাম। সেখানেও ছেদ পড়তে শুরু হয়েছে।

default-image

ভ্যাকসিন কিছু কিছু মানুষের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। আবার করোনাকে সঙ্গে নিয়েই বাঁচতে হবে, এমন একটা মনোভাব স্পষ্ট হয়ে উঠছে ক্রমেই। কারণ মহামারির প্রাথমিক আতঙ্ক কাটিয়ে উঠেছেন অনেকে। যতই ভয় কাটুক, কঠিনভাবে মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। খেয়াল রাখতে হবে পরিবারের একেক বয়সীদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা একেক রকম। বাচ্চাদের বেলায় বিষয়টি একটু বেশিই কঠিন। একে তো দীর্ঘদিন তারা ঘরে বন্দী থাকতে থাকতে অনেকটা হাঁপিয়ে উঠেছে। তার ওপর যখন দেখছে বড়রা অফিস, বাজারসহ নানা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যাচ্ছে, এতে তারাও বায়না ধরতে পারে। এমনকি একই কাজ করতে পারে পরিবারের বয়স্করাও।

default-image

এমন পরিস্থিতিতে করণীয় সম্পর্কে প্রথমে নিজে একটু বুঝে নিন। তারপর তাদের বোঝান। বলুন, সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। তাই সাবধানতা অবলম্বন করতেই হবে। পার্কে বা মাঠে এখনই যাওয়া যাবে না। তাদের সঙ্গে কথা বলুন, বোঝান। সবার ভালোর জন্য হলেও আরও কিছুদিন ঘরে থাকতেই হবে। অফিস, বাজারের মতো প্রয়োজনীয় কাজগুলো কেন করতে হয়। মাঝেমধ্যে তাদের বাড়ির ছাদে নিয়ে যেতে পারেন।

সম্পর্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন