নিজেকে জানা

২০১৭ সালে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরকৌশল বিভাগ থেকে স্নাতক হওয়ার পর একটি স্ট্রাকচারাল ডিজাইন কনসালট্যান্সি প্রতিষ্ঠানে যোগ দেন জেসিকা। সেখান থেকেই মূলত স্ট্রাকচারাল ডিজাইনের প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসা তৈরি হয় তাঁর। কিন্তু ‘জিপিএইচ ইস্পাত-প্রথম আলো ইন-জিনিয়াস’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে এসে তাঁর মনে হলো, বিষয়টি যতটা সহজ ভেবেছিলেন, আদতে তা নয়। প্রতিযোগিতায় যেসব শর্ত দিয়ে ‘স্ট্রাকচারাল ডিজাইন’ করতে বলা হয়েছে, সেসবের তেমন কিছুই তিনি জানতেন না। কিন্তু চ্যালেঞ্জটা ঠিকই নিতে চেয়েছিলেন। প্রতিযোগিতার প্রথম ধাপ অতিক্রমের পর ভেবেছেন, অন্তত শেখার জন্য হলেও শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতেই হবে। তাই সারা দিন অফিস শেষে বাড়ি ফেরা স্ট্রাকচারাল ডিজাইন নিয়ে পড়তে বসা কঠিন হলেও জেসিকা তা করেছেন খুশিমনে। প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় ধাপে আয়োজিত কর্মশালা এবং বিচারকদের দিকনির্দেশনাও কাজে এসেছে।

উচ্চশিক্ষায় আগ্রহ

বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ঢাকা এমআরটি লাইন-১ প্রকল্পে কাজ করছেন জেসিকা জামান। পাশাপাশি একটি স্ট্রাকচারাল কনসালট্যান্সি ফার্মে খণ্ডকালীন স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করছেন তিনি। স্ট্রাকচারাল ডিজাইনে হাতেখড়ি হয়েছে মূলত এখানেই।

জেসিকা জামান বলেন, ‘স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়টি খুবই জটিল। এখনো অনেক কিছু শেখার বাকি। তাই ভবিষ্যতে ভিনদেশে গিয়ে স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে উচ্চশিক্ষা নেওয়ার ইচ্ছা আছে।’