default-image

এসেছে হাইড্রোগার্ড সুবিধাসংবলিত বিশেষ জুতা। এ ধরনের জুতার ওপর আলাদা আরেকটা পানিরোধী স্তর থাকে। স্নিকারেও যুক্ত করা হয়েছে এই কৌশল। হাইড্রোগার্ডের এই জুতাগুলো পরলে বৃষ্টিতে পা ভিজবে না। পাওয়া যাবে নীল, বেগুনি, সাদা, হলুদ, ছাই, গোলাপি, খয়েরি রঙে। ছেলে বা মেয়ে উভয়ের জন্যই পাওয়া যাবে জানালেন বাটার হেড অব মার্কেটিং নূসরাত হাসান। বর্ষায় সবার পছন্দের তালিকায় থাকে চপ্পল ও স্যান্ডেল। যেভাবে খুশি নিজের মতো করে এগুলো ব্যবহার করা যায়। দামে সাশ্রয়ী এবং এ সময়ের ব্যবহার উপযোগী। ছেলেমেয়ে উভয়ের পরার উপেযাগী স্যান্ডেলই আছে। মেয়েদের স্যান্ডেলগুলোতে আছে ফুল, লতা, পাতা, জ্যামিতিক কাজ।

নিয়মিত পরার জন্য মেমোরি ফোম ও অর্থলাইট। এই দুই কৌশলের জুতা এখন বেশ জনপ্রিয়। প্রতিদিন যাঁরা বাইরে বের হচ্ছেন, তাঁদের শতভাগ আরাম নিশ্চিতের জন্য এ ধরনের সোলের জুতা খুব জনপ্রিয়। পায়ের ওপর যেন কোনো চাপ না পড়ে, সে জন্যই এ দুই ধরনের ফিচারের সৃষ্টি করেছেন বিশেষজ্ঞরা। স্লিপার, স্নিকার, হিল শু, ব্যালেরিনা, সাধারণ কাজের জুতাতেও মেমোরি ফোম এবং অর্থলাইট কৌশল যুক্ত করা হচ্ছে। জুতার ভেতরে পা দিলে আরাম বোধ করা যাবে, পা ফেলার সময় পায়ের ওপর চাপ পড়বে না। হোক বর্ষা তবু যেন মাঝেমধ্যে নিমন্ত্রণ পড়েই যায়। বর্ষায় দাওয়াতে পরার জন্য ফ্যাশনেবল জুতাতেও মেমোরি ফোম ও অর্থলাইট কৌশল বাদ যায়নি। বর্ষা আর ফ্যাশনে সন্ধি করে এসব জুতায় দেওয়া হচ্ছে নানা নকশা। একটু উঁচু হিলের মধ্যে ফ্যাশনেবল এসব জুতা নজর কাড়ছে।

জীবনযাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন