বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দ্য স্টেটসম্যান ঢাকার গুলশানের একটি আবাসন প্রকল্প। এটির স্থপতিদের পক্ষে সায়কা ইকবাল বলেন, ‘আর্কেশিয়া অ্যাওয়ার্ডস ফর আর্কিটেকচার গুরুত্বপূর্ণ একটা পুরস্কার। নতুন ধরনের ভবন বানিয়ে পাওয়া এই স্বীকৃতিতে আমরা ভীষণ আনন্দিত। এখানে নতুন ও পুরোনো প্রযুক্তির সমন্বয় ঘটানো হয়েছে। অল্প জায়গার ভেতর সবাই যাতে প্রকৃতিক আলো–বাতাসের সঙ্গে আধুনিক বাড়ির সব সুবিধা উপভোগ করতে পারেন, সেটি নিশ্চিত করা হয়েছে। তাপ অনেকটা আটকে ফেলে কেবল আলো ঢোকার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আর বহুতল এই ভবন দেখতে খুব সুন্দর। ইস্টার্ন হাউজিং লিমিটেডের এই প্রকল্প নগরে নতুন ধারার ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে চমৎকার ও গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন।’

সবুজ পাতা বাড়ির মালিক এই বাড়ি তৈরির পেছনে কৃতিত্বের একটা বড় অংশ ভাগ করে দিলেন নিজের স্ত্রী কাজী তানিয়া আর বন্ধু আছিয়া করিমের মধ্যে। তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রী বাস্তুশাস্ত্র নিয়ে রীতিমতো গবেষণা শুরু করল। তার সঙ্গে যোগ দিল শিল্পী রাহুল আনন্দ। দুজন মিলে বের করল ঘরে কোন গাছ রাখলে সেটা শক্তি দেয়, ফলের গাছ পুব দিকে মুখ করে হতে হবে, উত্তরের আলো লেখাপড়ার জন্য ভালো—এ রকম নানা কিছু। আর আছিয়া এই স্থাপনায় এত সময় দিয়েছেন, এত ডিটেইলসে কাজ করেছেন যে তিনি তাঁর নিজের বাড়ির জন্যও এতটা সময়, শ্রম, দিতে পারবেন কি না সন্দেহ। এই বাড়িতে কোনো গ্রিল নেই, প্লাস্টার নেই, ঢালাই নেই, সূর্যের আলো, উত্তরের হাওয়া সব ঘরে সমানভাবে ঢুকতে পারে। সব ঘর থেকে বাইরে বের হওয়া যায়। বাসাজুড়ে লাতানো গাছ। চারপাশে প্রচুর গাছ, প্রচুর পাখি। তাই পোকামাকড়ের উপদ্রব নেই। তিনতলায় আমার আঁকাআঁকির স্টুডিও আর খোলা ছাদ।’ ছবিগুলো স্থপতিদের কাছ থেকে সংগৃহীত।

default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
default-image
লাইফস্টাইল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন