বিজ্ঞাপন

তবে রমজানের শেষ দিনে বিশেষ ইফতারের আয়োজনে থাকে। বাংলাদেশি জিলাপি-পেঁয়াজু থেকে শুরু করে মধ্যপ্রাচ্যের জনপ্রিয় উটের মাংসের মাজাদার কাবাব—বাদ যায় না কিছুই। চাঁদরাতে এখানে ঢল নামে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অন্যান্য মুসলিম দেশের পরিযায়ী মানুষের। ইফতার থেকে শুরু করে ঈদের কেনাকাটা চলে গভীর রাত পর্যন্ত। সবাই বন্ধু-স্বজন নিয়ে মেতে ওঠেন ইফতার, আড্ডা ও কেনাকাটায়।

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ার মুসলিমদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। আজ বুধবার মুসলিম উম্মাহর উদ্দেশে এক শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই বার্তা শুরুই হয়েছে সবাইকে ঈদ মোবারক জানানোর মধ্য দিয়ে। এ ছাড়া সিডনিতে বেশ অনেকদিন ধরে স্থানীয় পর্যায়ে করোনার নতুন সংক্রমণ না থাকায় কোনো নিষেধাজ্ঞা ছাড়াই সব কার্যক্রম চলছিল। কিন্তু সম্প্রতি স্থানীয় পর্যায়ে কয়েকজন সংক্রমিত হওয়ায় বর্তমানে কিছু সাধারণ বিধিনিষেধ আরোপ করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলা হয়েছে। এই বিধিনিষেধ থাকবে ১৭ মে সোমবার মধ্যরাত পর্যন্ত।

লাইফস্টাইল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন