বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আলু

প্রাকৃতিক ব্লিচ হিসেবে আলু খুব ভালো। এ জন্য ডার্ক সার্কল কমাতেও দারুণ কার্যকর। আলুর রস ত্বক ঠান্ডা রাখে। সপ্তাহে অন্তত চার দিন এই রসে তুলো ভিজিয়ে চোখের নিচে আলতো করে ঘষে নিতে হবে। অথবা আলুর রসে ভেজা তুলো কিছুক্ষণ চোখের ওপরে রেখে দেওয়া যেতে পারে। ১০ মিনিট পর ঠান্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে।

default-image

টি ব্যাগ

প্রাকৃতিক অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট হিসেবে গ্রিন টি বেশ জনপ্রিয়, যা চোখের নিচের দাগ দূর করতে ভালো কাজ করে। চা বানানো শেষে টি ব্যাগ ফেলে না দিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে নিতে হবে। এবার ওই টি ব্যাগ চোখের ওপর রেখে দিতে হবে। প্রতিদিন ব্যবহার করলে দ্রুত ফল পাওয়া যাবে।

কমলালেবুর রস

কমলালেবুর রস ডার্ক সার্কল দূর করতে খুবই কার্যকর। কমলালেবুতে রয়েছে ব্লিচিং প্রপার্টি। সামান্য কমলালেবুর রসে কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ডার্ক সার্কলের ওপর নিয়মিত লাগালে তা দূর হবে। পাশাপাশি ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ে।

default-image

শসা

শসার রসে স্কিন লাইটেনিং ও অ্যাস্ট্রিনজেন্ট প্রপার্টি রয়েছে, যা ডার্ক সার্কল কমানোর ক্ষেত্রে খুব কার্যকর। পাশাপাশি শসা রিফ্রেশিং। শসা মোটা স্লাইস করে কেটে নিতে হবে। এবার টুকরাগুলোকে ৩০ মিনিট ফ্রিজে রাখতে হবে। তারপর ১০ মিনিট টুকরাগুলো চোখের ওপর রেখে দিতে হবে এবং দাগের ওপর কিছুক্ষণ আলতো করে ঘষে নিতে হবে। দিনে দুবার এক সপ্তাহ ব্যবহার করলে ডার্ক সার্কল কমবে। আরও একটি উপায় হচ্ছে সমপরিমাণে লেবু ও শসার রস মিশিয়ে তুলো দিয়ে চোখের চারপাশে লাগাতে হবে। এরপর ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

টমেটো

default-image

চোখের নিচের কালি, দাগ-ছোপ, ট্যান কমাতে টমেটো উপকারী। এটি ত্বক নরম করে ও ডার্ক সার্কল ধীরে ধীরে কমিয়ে দেয়। ১ চামচ টমেটোর রস প্রতিদিন গোসলের আগে চোখের নিচে লাগিয়ে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। দিনে দুবার এভাবে টমেটোর রস লাগানো যেতে পারে। এ ছাড়া টমেটো, পুদিনাপাতা ও লেবুর রস একসঙ্গে ব্লেন্ড করে খেলেও ডার্ক সার্কল কমে। পাশাপাশি ত্বকও ভেতর থেকে উজ্জ্বল হয়।

রূপচর্চা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন