বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ঘুমাতে যাওয়ার আগে

ঘুমাতে যাওয়ার আগে নিয়ম করে দাঁতের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি ত্বকেরও কিছুটা যত্ন নিলেই হয়ে গেল। এতে বাড়তি সময় ব্যয় করার প্রয়োজন হলো না। এতে অ্যাকনে, খসখসে ঠোঁট ও শুষ্ক ত্বকের সমস্যার সমাধান হতে পারে। কেউ চাইলে যে টুথপেস্ট দাঁত ব্রাশের জন্য ব্যবহার করছেন, তা অ্যাকনের ওপর লাগিয়ে নিন। আর টুথব্রাশ দিয়ে আলতো করে ঠোঁটজোড়া ঘষে নিন। সকালে ঘুম থেকে উঠেই দেখবেন ঠোঁট যেমন নরম হয়েছে, তেমনি অ্যাকনেও মিলিয়ে গেছে। তবে এ ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে, সব ধরনের অ্যাকনে কিন্তু টুথপেস্টে দূর হয় না।

default-image

ক্লিনজিং অয়েল বেছে নিন

অনেকেই একসঙ্গে একাধিক সৌন্দর্য পণ্য ব্যবহার করতে চান না। তাঁদের জন্য ক্লিনজিং অয়েল ভালো। অনেকেই হয়তো জানেন না ক্লিনজিং অয়েল আসলে একধরনের তেল। তবে ত্বক পরিষ্কারে এটি খুবই কার্যকর। এটি একই সঙ্গে মেকআপ গলাতে যেমন কার্যকর, তেমনি চট করে ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে তেল ও ময়লা দূর করে। প্রতিদিনের ধুলা–ময়লা দূর করার পাশপাশি অ্যাকনের ওপর এটি খুবই কার্যকর। দিনের শেষে পাঁচ থেকে সাত মিনিট ক্লিনজিং অয়েল দিয়ে মুখ ম্যাসাজ করলে ব্ল্যাকহেডস, হোয়াইটহেডস অনায়াসেই দূর হবে। সেই সঙ্গে ত্বকও পরিষ্কার হবে। মেকআপ থাকলে তা–ও উঠে আসবে।

রূপচর্চা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন